হেমন্তকাল  - বৃহস্পতিবার | ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৭শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি | ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

হেমন্তকাল  - বৃহস্পতিবার | ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২৭শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

এবার আর ‘সুযোগ’ হাতছাড়া করতে চায় না বাংলাদেশ!

জনপদ ডেস্কঃ একের পর এক সুযোগ হাতছাড়ার আক্ষেপ নিয়ে চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দু-দুটি পরাজয় দেখেছে বাংলাদেশ। টাইগারদের সামনে এবার শক্তিশালী ইংল্যান্ড। তবে মরগ্যানদের হারাতে এবার ‘সুযোগ’ কাজে লাগানোর দিকেই নজর দিচ্ছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল।

আবু ধাবিতে বুধবার (২৬ অক্টোবর) বাংলাদেশ সময় বিকাল ৪টায় অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ ও ইংল্যান্ডের ম্যাচটি।

এর আগে নিজেদের প্রথম ম্যাচে উইন্ডিজকে মাত্র ৫৫ রানে অলআউট করে দাপট দেখানো ইংলিশরা ব্যাট হাতে নেমে হারিয়েছিল ৪টি উইকেট। ওই স্বল্প পুঁজি নিয়েই ক্যারিবীয় বোলারদের এমন লড়াই দেখে প্রেরণা নেয়া বাংলাদেশ দলের বিশ্বাস, তাদেরকেও তেমন ‘সুযোগ’ দেবে ইংল্যান্ড।

আর সাকিব-রিয়াদরা সেই সুযোগ কাজে লাগাতেই মরিয়া এখন। ম্যাচ পূর্ব আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে দলের পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসন তেমনই ইঙ্গিত দেন।

তিনি বলেন, ‘ইংল্যান্ডের ব্যাটিং লাইনআপ খুব শক্ত। আমরা টিম মিটিংয়ে এসব নিয়ে কথা বলেছি। আমাদের বোলিংয়ে তাই নিখুঁত হতে হবে। জানি ওরা আমাদের কঠিন লড়াই উপহার দিবে, পাশাপাশি আমাদেরকে সুযোগও দিবে। আমাদের নিজেদের সেরা খেলা খেলতে হবে এবং মনে রাখতে হবে যে, ওরা আমাদের সুযোগ দিবে।’

প্রতিপক্ষ যখন ইংল্যান্ড, তখন কঠিন লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত হওয়াটাই স্বাভাবিক। তবে টাইগারদের বিশ্বাস, ইতিবাচক মানসিকতা নিয়ে খেললে ইংল্যান্ডকে হারানোটা কঠিন হবে না।

গিবসন বলেন, ‘ইংল্যান্ডের মানসিকতা সবসময় ইতিবাচক থাকে। একইভাবে আমরাও যদি ইতিবাচক থাকি, তাহলে যে কোনো কিছুই হতে পারে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৫৫ রান তাড়া করতেই ওদের ৪ উইকেট চলে যায়। একজন অবশ্য রান আউট হয়েছে, কিন্তু বাকিদের আউট করেছে ক্যারিবীয় বোলাররাই।’

ক্যারিবীয় এই সাবেক বোলার আরও বলেন, ‘নিজেদের দিনে পাওয়া এমন সুযোগগুলো যদি আমরা কাজে লাগাই তবে অবশ্যই আমরা ম্যাচটা জিততে পারি। আমরা এখানে প্রতিযোগিতা করতে এসেছি এবং সেই মানসিকতা নিয়েই আমরা মাঠে নামব।’

বাংলাদেশ একাদশ (সম্ভাব্য):
মোহাম্মদ নাঈম, লিটন দাস, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), আফিফ হোসাইন, নুরুল হাসান সোহান (উইকেটরক্ষক), মাহেদী হাসান, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, তাসকিন আহমেদ ও মুস্তাফিজুর রহমান।

ইংল্যান্ড একাদশ (সম্ভাব্য):
জেসন রয়, জস বাটলার (উইকেটরক্ষক), ডেয়িড মালান, জনি বেয়ারস্টো, লিয়াম লিভিংস্টোন, ইয়ন মরগ্যান (অধিনায়ক), মঈন আলী, ক্রিস ওকস, ক্রিস জর্ডান, আদিল রশিদ, টিমাল মিলস/মার্ক উড।

RELATED ARTICLES

সর্বাধিক পঠিত