রাজশাহী , সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
পবিত্র ইদুল আযহা উপলক্ষে আগামী ১৬ জুন ২০২৪ থেকে ২১ জুন ২০২৪ তারিখ পর্যন্ত বাংলার জনপদের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। ২২ জুন ২০২৪ তারিখ থেকে পুনরায় সকল কার্যক্রম চালু থাকবে। ***ধন্যবাদ**

৭৮তম জন্মদিন নায়করাজের

  • আপডেটের সময় : ০৬:২৪:২৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৩ জানুয়ারী ২০১৯
  • ৬৩ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

বিনোদন ডেস্ক: বুধবার (২৩ জানুয়ারি) নায়করাজ রাজ্জাক’র ৭৮তম জন্মদিন। প্রয়াত এই মহানায়কের জন্মদিন উপলক্ষে প্রতিবারই বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনসহ (বিএফডিসি) বিনোদনের বিভিন্ন মাধ্যমে থাকে নানা আয়োজন।

কিন্তু নায়করাজ’র এবারের জন্মদিনটা কাটবে শোকাবহ পরিবেশে। কারণ মঙ্গলবার (২২ জানুয়ারি) দেশ বরেণ্য সঙ্গীতজ্ঞ-বীর মুক্তিযোদ্ধা আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের মৃত্যুতে বিনোদন অঙ্গনসহ সারাদেশে নেমে পড়েছে শোকের ছায়া। যে কারণে রাজ্জাকের ৭৮তম জন্মদিনে থাকছে না বিশেষ কোনো আয়োজন।

Trulli

১৯৪২ সালের ২৩ জানুয়ারি পশ্চিমবঙ্গে জন্মগ্রহণ করেন রাজ্জাক। ১৯৬৪ সালে কলকাতায় হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা শুরু হলে পরিবার নিয়ে ঢাকায় চলে আসেন তিনি।

গুণী এই অভিনেতা ১৯৬৬ সালে ‘বেহুলা’ সিনেমায় নায়ক হিসেবে অভিনয় করে দর্শকনন্দিত হন। এরপর- ‘অবুঝ মন’, ‘আলোর মিছিল’ ‘ছুটির ঘণ্টা’, ‘রংবাজ’, ‘বাবা কেন চাকর’, ‘নীল আকাশের নিচে’, ‘জীবন থেকে নেওয়া’ ‘পিচঢালা পথ’, ‘অশিক্ষিত’, ‘বড় ভালো লোক ছিল’সহ অসংখ্য ছবিতে অভিনয় করেন নায়করাজ।

রাজ্জাক সর্বশেষ অভিনয় করেন তার ছেলে বাপ্পারাজ পরিচালিত ‘কার্তুজ’ সিনেমায়। তিনি প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান ‘কি যে করি’ সিনেমায় অভিনয় করে। নায়ক হিসেবেই নয়, পরিচালক হিসেবেও বেশ সফল ছিলেন রাজ্জাক। তিনি ‘আয়না কাহিনী’ সিনেমাটি নির্মাণ করে অনেক বেশি প্রশংসিত হন।

গুণী এই অভিনেতা চলচ্চিত্রশিল্পে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরুপ স্বাধীনতা পদকসহ পাঁচবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। এছাড়া আজীবন সম্মাননার পাশাপাশি দেশে-বিদেশের আরও অসংখ্য পুরস্কারে ভূষিত হন নায়করাজ।

অবশেষে ২০১৭ সালের ২১ আগস্ট ৭৬ বছর বয়সে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান দেশিয় চলচ্চিত্রের এই মহানায়ক।

Adds Banner_2024

৭৮তম জন্মদিন নায়করাজের

আপডেটের সময় : ০৬:২৪:২৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৩ জানুয়ারী ২০১৯

বিনোদন ডেস্ক: বুধবার (২৩ জানুয়ারি) নায়করাজ রাজ্জাক’র ৭৮তম জন্মদিন। প্রয়াত এই মহানায়কের জন্মদিন উপলক্ষে প্রতিবারই বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনসহ (বিএফডিসি) বিনোদনের বিভিন্ন মাধ্যমে থাকে নানা আয়োজন।

কিন্তু নায়করাজ’র এবারের জন্মদিনটা কাটবে শোকাবহ পরিবেশে। কারণ মঙ্গলবার (২২ জানুয়ারি) দেশ বরেণ্য সঙ্গীতজ্ঞ-বীর মুক্তিযোদ্ধা আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের মৃত্যুতে বিনোদন অঙ্গনসহ সারাদেশে নেমে পড়েছে শোকের ছায়া। যে কারণে রাজ্জাকের ৭৮তম জন্মদিনে থাকছে না বিশেষ কোনো আয়োজন।

Trulli

১৯৪২ সালের ২৩ জানুয়ারি পশ্চিমবঙ্গে জন্মগ্রহণ করেন রাজ্জাক। ১৯৬৪ সালে কলকাতায় হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা শুরু হলে পরিবার নিয়ে ঢাকায় চলে আসেন তিনি।

গুণী এই অভিনেতা ১৯৬৬ সালে ‘বেহুলা’ সিনেমায় নায়ক হিসেবে অভিনয় করে দর্শকনন্দিত হন। এরপর- ‘অবুঝ মন’, ‘আলোর মিছিল’ ‘ছুটির ঘণ্টা’, ‘রংবাজ’, ‘বাবা কেন চাকর’, ‘নীল আকাশের নিচে’, ‘জীবন থেকে নেওয়া’ ‘পিচঢালা পথ’, ‘অশিক্ষিত’, ‘বড় ভালো লোক ছিল’সহ অসংখ্য ছবিতে অভিনয় করেন নায়করাজ।

রাজ্জাক সর্বশেষ অভিনয় করেন তার ছেলে বাপ্পারাজ পরিচালিত ‘কার্তুজ’ সিনেমায়। তিনি প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান ‘কি যে করি’ সিনেমায় অভিনয় করে। নায়ক হিসেবেই নয়, পরিচালক হিসেবেও বেশ সফল ছিলেন রাজ্জাক। তিনি ‘আয়না কাহিনী’ সিনেমাটি নির্মাণ করে অনেক বেশি প্রশংসিত হন।

গুণী এই অভিনেতা চলচ্চিত্রশিল্পে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরুপ স্বাধীনতা পদকসহ পাঁচবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। এছাড়া আজীবন সম্মাননার পাশাপাশি দেশে-বিদেশের আরও অসংখ্য পুরস্কারে ভূষিত হন নায়করাজ।

অবশেষে ২০১৭ সালের ২১ আগস্ট ৭৬ বছর বয়সে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান দেশিয় চলচ্চিত্রের এই মহানায়ক।