রাজশাহী , মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
পবিত্র ইদুল আযহা উপলক্ষে আগামী ১৬ জুন ২০২৪ থেকে ২১ জুন ২০২৪ তারিখ পর্যন্ত বাংলার জনপদের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। ২২ জুন ২০২৪ তারিখ থেকে পুনরায় সকল কার্যক্রম চালু থাকবে। ***ধন্যবাদ**

সুতার ঘাটতি ৪ লাখ টন জানালেন বস্ত্রমন্ত্রী

  • জনপদ ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : ০৯:২১:৫৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুন ২০২৪
  • ৬ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

তৈরি পোশাক রপ্তানির ক্ষেত্রে নিট সুতার চাহিদার তুলনায় চার লাখ টন সুতার ঘাটতি রয়েছে বলে জানিয়েছেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবির নানক।

আজ সোমাবার (১০ জুন) বিকেলে সংসদের বাজেট অধিবেশনে সদস্য মো. জাকারিয়ার লিখিত প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী সংসদে সভাপতিত্ব করেন।

Trulli

মন্ত্রী বলেন, তৈরি পোশাক রপ্তানির ক্ষেত্রে ওভেন এবং ডেনিমের চাহিদা প্রায় আট বিলিয়ন মিটার। এর মধ্যে চার বিলিয়ন মিটার দেশে উৎপাদিত হয় এবং চার বিলিয়ন মিটার আমদানি করা হয়। নিট সুতার চাহিদা প্রায় ১৬ লাখ টন। এর মধ্যে ১২ লাখ টন সুতার দেশে উৎপাদিত হয় এবং প্রায় চার লাখ টন ঘাটতি রয়েছে, যা আমদানি করা হয়।

তিনি জানান, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের অধীন বস্ত্র অধিদপ্তর পোশাক কর্তৃপক্ষ হিসেবে বস্ত্র শিল্পের নিবন্ধন দিচ্ছে। পোশাক কর্তৃপক্ষ সেবা সহজ করার ফলে শিল্প উদ্যোক্তারা দেশে নতুন নতুন বস্ত্র ও সুতা উৎপাদনকারী শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপন করছে। ফলে তৈরি পোশাক রপ্তানির জন্য ওভেন রপ্তানির জন্য ওভেন ও ডেনিম বস্ত্রের ঘাটতি ক্রমান্বয়ে কমে আসবে।

জাহাঙ্গীর কবির নানক জানান, বর্তমানে দেশের স্থানীয় বাজারে বাৎসরিক বস্ত্রের চাহিদার পরিমাণ প্রায় ৭ বিলিয়ন মিটার। দেশের স্থানীয় বাজারে বস্ত্রের চাহিদার ঘাটতি নেই।

Adds Banner_2024

সুতার ঘাটতি ৪ লাখ টন জানালেন বস্ত্রমন্ত্রী

আপডেটের সময় : ০৯:২১:৫৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুন ২০২৪

তৈরি পোশাক রপ্তানির ক্ষেত্রে নিট সুতার চাহিদার তুলনায় চার লাখ টন সুতার ঘাটতি রয়েছে বলে জানিয়েছেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবির নানক।

আজ সোমাবার (১০ জুন) বিকেলে সংসদের বাজেট অধিবেশনে সদস্য মো. জাকারিয়ার লিখিত প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী সংসদে সভাপতিত্ব করেন।

Trulli

মন্ত্রী বলেন, তৈরি পোশাক রপ্তানির ক্ষেত্রে ওভেন এবং ডেনিমের চাহিদা প্রায় আট বিলিয়ন মিটার। এর মধ্যে চার বিলিয়ন মিটার দেশে উৎপাদিত হয় এবং চার বিলিয়ন মিটার আমদানি করা হয়। নিট সুতার চাহিদা প্রায় ১৬ লাখ টন। এর মধ্যে ১২ লাখ টন সুতার দেশে উৎপাদিত হয় এবং প্রায় চার লাখ টন ঘাটতি রয়েছে, যা আমদানি করা হয়।

তিনি জানান, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের অধীন বস্ত্র অধিদপ্তর পোশাক কর্তৃপক্ষ হিসেবে বস্ত্র শিল্পের নিবন্ধন দিচ্ছে। পোশাক কর্তৃপক্ষ সেবা সহজ করার ফলে শিল্প উদ্যোক্তারা দেশে নতুন নতুন বস্ত্র ও সুতা উৎপাদনকারী শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপন করছে। ফলে তৈরি পোশাক রপ্তানির জন্য ওভেন রপ্তানির জন্য ওভেন ও ডেনিম বস্ত্রের ঘাটতি ক্রমান্বয়ে কমে আসবে।

জাহাঙ্গীর কবির নানক জানান, বর্তমানে দেশের স্থানীয় বাজারে বাৎসরিক বস্ত্রের চাহিদার পরিমাণ প্রায় ৭ বিলিয়ন মিটার। দেশের স্থানীয় বাজারে বস্ত্রের চাহিদার ঘাটতি নেই।