রাজশাহী , মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
পবিত্র ইদুল আযহা উপলক্ষে আগামী ১৬ জুন ২০২৪ থেকে ২১ জুন ২০২৪ তারিখ পর্যন্ত বাংলার জনপদের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। ২২ জুন ২০২৪ তারিখ থেকে পুনরায় সকল কার্যক্রম চালু থাকবে। ***ধন্যবাদ**

কুয়েতে অবৈধ প্রবাসীদের জন্য সাধারণ ক্ষমার ঘোষণা

  • আপডেটের সময় : ১০:৫১:৫৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ মার্চ ২০২৪
  • ৫ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

জনপদ ডেস্ক: কুয়েতে রমজান মাস এবং আমির শেখ মিশাল আল-আহমাদ সরকারের শাসনভার গ্রহণ করায় চলতি মাসের ১৭ মার্চ থেকে ১৭ জুন পর্যন্ত আকামা আইন লঙ্ঘনকারী অবৈধ প্রবাসীদের জন্য সাধারণ ক্ষমার ঘোষণা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে স্থানীয় আল রাই ও আল যেরিদাসহ একাধিক গণমাধ্যমে সাধারণ ক্ষমার সংবাদ প্রকাশ করে।

Trulli

সংবাদে উল্লেখ করা হয়েছে, সাধারণ ক্ষমার তিন মাসের মধ্যে অবৈধ প্রবাসীরা কোনো ধরনের জেলজরিমানা ছাড়া নিজ দেশে যেতে পারবে।  চাইলে পুনরায় নতুন ভিসা নিয়ে প্রবেশ করতে পারবে। আবার নির্দিষ্ট প্রক্রিয়ার মাধ্যমে জরিমানা পরিশোধ করে চাইলে বৈধ হয়ে আকামা নবায়ন করার সুযোগ পাবে।

তবে যদি কারও বিরুদ্ধে ফৌজদারি কোনো অভিযোগ থাকে, তা হলে তাকে নির্ধারিত অফিসে যোগাযোগ করে সাধারণ ক্ষমার সুযোগ গ্রহণ করতে পারবে কিনা সেটি নিশ্চিত হতে হবে।

সাধারণ ক্ষমার নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে যেসব অবৈধ অভিবাসী বৈধ হওয়ার সুযোগ হারাবে এবং কুয়েত ত্যাগ করবে না, তাদের কালো তালিকাভুক্ত করা হবে এবং আইনানুসারে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এর আগে ২০২০ সালের এপ্রিল মাসে করোনাকালীন সাধারণ ক্ষমার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল।

Adds Banner_2024

কুয়েতে অবৈধ প্রবাসীদের জন্য সাধারণ ক্ষমার ঘোষণা

আপডেটের সময় : ১০:৫১:৫৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ মার্চ ২০২৪

জনপদ ডেস্ক: কুয়েতে রমজান মাস এবং আমির শেখ মিশাল আল-আহমাদ সরকারের শাসনভার গ্রহণ করায় চলতি মাসের ১৭ মার্চ থেকে ১৭ জুন পর্যন্ত আকামা আইন লঙ্ঘনকারী অবৈধ প্রবাসীদের জন্য সাধারণ ক্ষমার ঘোষণা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে স্থানীয় আল রাই ও আল যেরিদাসহ একাধিক গণমাধ্যমে সাধারণ ক্ষমার সংবাদ প্রকাশ করে।

Trulli

সংবাদে উল্লেখ করা হয়েছে, সাধারণ ক্ষমার তিন মাসের মধ্যে অবৈধ প্রবাসীরা কোনো ধরনের জেলজরিমানা ছাড়া নিজ দেশে যেতে পারবে।  চাইলে পুনরায় নতুন ভিসা নিয়ে প্রবেশ করতে পারবে। আবার নির্দিষ্ট প্রক্রিয়ার মাধ্যমে জরিমানা পরিশোধ করে চাইলে বৈধ হয়ে আকামা নবায়ন করার সুযোগ পাবে।

তবে যদি কারও বিরুদ্ধে ফৌজদারি কোনো অভিযোগ থাকে, তা হলে তাকে নির্ধারিত অফিসে যোগাযোগ করে সাধারণ ক্ষমার সুযোগ গ্রহণ করতে পারবে কিনা সেটি নিশ্চিত হতে হবে।

সাধারণ ক্ষমার নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে যেসব অবৈধ অভিবাসী বৈধ হওয়ার সুযোগ হারাবে এবং কুয়েত ত্যাগ করবে না, তাদের কালো তালিকাভুক্ত করা হবে এবং আইনানুসারে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এর আগে ২০২০ সালের এপ্রিল মাসে করোনাকালীন সাধারণ ক্ষমার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল।