শিক্ষা

বায়োডাটায় নিজের যে ৫ বিষয়ে লেখা থেকে বিরত থাকবেন

জনপদ ডেস্ক: সিভি বা বায়োডাটা শব্দগুলো কানে ভেসে আসলে প্রথমে যেটি মনে পড়বে তা হলো চাকরি। সাধারণ চাকরি সংক্রান্ত ক্ষেত্রেই সিভি বা বায়োডাটার প্রয়োজন হয়। তবে সিভি বানানোর সময় খেয়াল রাখতে হবে, যেন এমন কোনও ভুল না হয় যাতে সেটির আকর্ষণ কমে যায়। ভাল চাকরি পাওয়ার সুযোগ হাতছাড়া হয়ে যেতে পারে বায়োডেটার জন্য।

আসুন জেনে নেওয়া যাক সিভি তৈরির সময় কোন টিপস মাথায় রাখা উচিত-

গুগলের শিকাগোভিত্তিক একজন বর্ষীয়ান নিয়োগকারী এরিকা রিভেরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ সংক্রান্ত কয়েকটি টিপস শেয়ার করেছেন। তিনি হাজার হাজার ওয়েবসাইট খতিয়ে দেখেছেন যে সকলে নিজেদের জীবনের প্রচুর অবাঞ্ছিত তথ্য বায়োডাটায় উল্লেখ করেছেন।

তিনি চান না সবাই বায়োডাটায় নিজের বাড়ির পুরো ঠিকানা লিখুক। শুধুমাত্র শহর ও রাজ্যের নাম উল্লেখ করলেই হবে। নিজের পূর্ববর্তী কাজের সম্পূর্ণ ইতিহাসও না দেওয়ারও পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘আপনি আপনার পেশাগত কেরিয়ার শুরু করার পর থেকে আমাদের আপনার সম্পূর্ণ কাজের ইতিহাসের প্রয়োজন নেই। আপনি যে ভূমিকার জন্য আবেদন করেছেন তার জন্য আপনার অনুসন্ধান এবং সারসংকলনকে উপযোগী করে তোলার জন্য আমাদের যা ফোকাস করতে হবে।’

‘আমি সাহায্য করেছি’, ‘আমি দায়ী ছিলাম’-এর মতো দুর্বল অ্যাকশন ক্রিয়ার ব্যবহার বন্ধ করার পরমার্শ দিয়েছেন তিনি। জীবনবৃত্তান্তে নিষ্ক্রিয় ভাষার পরিবর্তে, রিভেরা আবেদনকারীদেরকে সক্রিয় ক্রিয়াপদ ব্যবহার করার পরামর্শ দিয়েছেন। যেমন-সুবিন্যস্ত, পরিচালিত, বেড়েছে, উৎপাদন হয়েছে’ শব্দগুলি ব্যবহার করতে।

গুগল নিয়োগকারীর মতে, বায়োডাটার শীর্ষে থাকা ‘উদ্দেশ্য’দেওয়াটা যথাযথ নয়। তিনি এই অনুশীলনকে প্রাচীন এবং আজকের সময়ে অপ্রাসঙ্গিক বলে উল্লেখ করেছেন। সূত্র- নিউজ ১৮

আরো দেখুন

সম্পরকিত খবর

Back to top button