রাজশাহী , মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
পবিত্র ইদুল আযহা উপলক্ষে আগামী ১৬ জুন ২০২৪ থেকে ২১ জুন ২০২৪ তারিখ পর্যন্ত বাংলার জনপদের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। ২২ জুন ২০২৪ তারিখ থেকে পুনরায় সকল কার্যক্রম চালু থাকবে। ***ধন্যবাদ**

আপিলেও বাদ রুহুল আমিন হাওলাদার

  • আপডেটের সময় : ০৬:০২:৪৩ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৭ ডিসেম্বর ২০১৮
  • ৭৫ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

ঢাকা প্রতিনিধি: আসন্ন সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির সাবেক মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদারের আপিল আবেদন নামঞ্জুর করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ফলে উচ্চ আদালতে যাওয়া ছাড়া তার হাতে প্রার্থিতা ফিরে পাওয়ার আর কোনো উপায় নেই।

গত ২ ডিসেম্বর ঋণ খেলাপের কারণ দেখিয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা তার মনোনয়নপত্র বাতিল করেন। ওই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপলি করলে শুক্রবার (০৭ ডিসেম্বর) শুনানিতে তার আবেদন নামঞ্জুর করে দিলো ইসি।

Trulli

ইসিতে শুনানির দ্বিতীয় দিনে ১৬০ জনের শুনানি সম্পন্ন করবে নির্বাচন। রায়ের সার্টিফায়েড কপি শুক্রবারই প্রার্থিরা সংগ্রহ করতে পারবেন।

২ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র বাছাইয়ে ২ হাজার ২৭৯টি মনোনয়নপত্র বৈধ ও ৭৮৬টি অবৈধ বলে ঘোষণা করেন সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তারা। এগুলোর মধ্যে বিএনপির ১৪১, আওয়ামী লীগের ৩ এবং জাতীয় পার্টির ৩৮টি মনোনয়নপত্র বাতিল হয়। স্বতন্ত্র প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে ৩৮৪টি।

৩৯টি দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মিলে এবার ৩০৬৫টি মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিল। এর মধ্যে দলীয় মনোনয়নপত্র জমা পড়ে মোট ২ হাজার ৫৬৭টি ও স্বতন্ত্র ৪৯৮টি।

শুনানি শেষ হবে ৮ ডিসেম্বর। ৯ ডিসেম্বর প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময়। ১০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ। আর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ৩০ ডিসেম্বর।

Adds Banner_2024

আপিলেও বাদ রুহুল আমিন হাওলাদার

আপডেটের সময় : ০৬:০২:৪৩ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৭ ডিসেম্বর ২০১৮

ঢাকা প্রতিনিধি: আসন্ন সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির সাবেক মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদারের আপিল আবেদন নামঞ্জুর করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ফলে উচ্চ আদালতে যাওয়া ছাড়া তার হাতে প্রার্থিতা ফিরে পাওয়ার আর কোনো উপায় নেই।

গত ২ ডিসেম্বর ঋণ খেলাপের কারণ দেখিয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা তার মনোনয়নপত্র বাতিল করেন। ওই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপলি করলে শুক্রবার (০৭ ডিসেম্বর) শুনানিতে তার আবেদন নামঞ্জুর করে দিলো ইসি।

Trulli

ইসিতে শুনানির দ্বিতীয় দিনে ১৬০ জনের শুনানি সম্পন্ন করবে নির্বাচন। রায়ের সার্টিফায়েড কপি শুক্রবারই প্রার্থিরা সংগ্রহ করতে পারবেন।

২ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র বাছাইয়ে ২ হাজার ২৭৯টি মনোনয়নপত্র বৈধ ও ৭৮৬টি অবৈধ বলে ঘোষণা করেন সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তারা। এগুলোর মধ্যে বিএনপির ১৪১, আওয়ামী লীগের ৩ এবং জাতীয় পার্টির ৩৮টি মনোনয়নপত্র বাতিল হয়। স্বতন্ত্র প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে ৩৮৪টি।

৩৯টি দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মিলে এবার ৩০৬৫টি মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিল। এর মধ্যে দলীয় মনোনয়নপত্র জমা পড়ে মোট ২ হাজার ৫৬৭টি ও স্বতন্ত্র ৪৯৮টি।

শুনানি শেষ হবে ৮ ডিসেম্বর। ৯ ডিসেম্বর প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময়। ১০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ। আর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ৩০ ডিসেম্বর।