রাজশাহী , সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
পবিত্র ইদুল আযহা উপলক্ষে আগামী ১৬ জুন ২০২৪ থেকে ২১ জুন ২০২৪ তারিখ পর্যন্ত বাংলার জনপদের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। ২২ জুন ২০২৪ তারিখ থেকে পুনরায় সকল কার্যক্রম চালু থাকবে। ***ধন্যবাদ**

আপিলে প্রার্থিতা ফিরে পেলেন ব্যারিস্টার আমিনুল

  • আপডেটের সময় : ১২:২০:১৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ ডিসেম্বর ২০১৮
  • ৯২ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

রাজশাহী প্রতিনিধি: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া প্রার্থীদের আপিলের শুনানি শুরু হয় বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায়। আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে এ শুনানি শুরু করে নির্বাচন কমিশন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী শামসুল হুদার আবেদনের শুনানির মাধ্যমে কমিশন এ কার্যক্রম শুরু করে।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নুরুল হুদাসহ অন্য নির্বাচন কমিশনাররা শুনানি করেন। শুনানির প্রথম দিনে বেশ কয়েকজন প্রার্থিতা ফিরে পান। তাদের বেশিরভাগই ধানের শীষের প্রার্থী। যার মধ্যে রয়েছে রাজশাহী-১ (গোদাগাড়ী-তানোর) আসনের বিএনপির প্রার্থী সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার আমিনুল হক। ১৪১ নম্বর সিরিয়ালে তার শুনানি হয়। শুনানি শেষে তার মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশনার।

Trulli

রাজশাহী-১ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন ১২ জন। যাচাই-বাছাই শেষে এদের মধ্যে ব্যারিস্টার আমিনুলসহ আটজনের প্রার্থীতা বাতিল করে রিটানিং অফিসার। এর বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে আপিল করে ব্যারিস্টার আমিনুল হক।

এ আসেন এখন প্রার্থী থাকলেন পাঁচজন। এরা হলেন, আওয়ামী লীগের ওমর ফারুক চৌধুরী, বিএনপির ব্যারিস্টার আমিনুল হক, তার স্ত্রী আভা হক, ওয়ার্কার্স পার্টির রফিকুল ইসলাম ও ইসলামী আন্দোলনের আব্দুল মান্নান।

Adds Banner_2024

আপিলে প্রার্থিতা ফিরে পেলেন ব্যারিস্টার আমিনুল

আপডেটের সময় : ১২:২০:১৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ ডিসেম্বর ২০১৮

রাজশাহী প্রতিনিধি: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া প্রার্থীদের আপিলের শুনানি শুরু হয় বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায়। আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে এ শুনানি শুরু করে নির্বাচন কমিশন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী শামসুল হুদার আবেদনের শুনানির মাধ্যমে কমিশন এ কার্যক্রম শুরু করে।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নুরুল হুদাসহ অন্য নির্বাচন কমিশনাররা শুনানি করেন। শুনানির প্রথম দিনে বেশ কয়েকজন প্রার্থিতা ফিরে পান। তাদের বেশিরভাগই ধানের শীষের প্রার্থী। যার মধ্যে রয়েছে রাজশাহী-১ (গোদাগাড়ী-তানোর) আসনের বিএনপির প্রার্থী সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার আমিনুল হক। ১৪১ নম্বর সিরিয়ালে তার শুনানি হয়। শুনানি শেষে তার মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশনার।

Trulli

রাজশাহী-১ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন ১২ জন। যাচাই-বাছাই শেষে এদের মধ্যে ব্যারিস্টার আমিনুলসহ আটজনের প্রার্থীতা বাতিল করে রিটানিং অফিসার। এর বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে আপিল করে ব্যারিস্টার আমিনুল হক।

এ আসেন এখন প্রার্থী থাকলেন পাঁচজন। এরা হলেন, আওয়ামী লীগের ওমর ফারুক চৌধুরী, বিএনপির ব্যারিস্টার আমিনুল হক, তার স্ত্রী আভা হক, ওয়ার্কার্স পার্টির রফিকুল ইসলাম ও ইসলামী আন্দোলনের আব্দুল মান্নান।