রাজশাহী , বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
পবিত্র ইদুল আযহা উপলক্ষে আগামী ১৬ জুন ২০২৪ থেকে ২১ জুন ২০২৪ তারিখ পর্যন্ত বাংলার জনপদের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। ২২ জুন ২০২৪ তারিখ থেকে পুনরায় সকল কার্যক্রম চালু থাকবে। ***ধন্যবাদ**

বিএনপির নেতাদের নির্বাচন থেকে দূরে রাখাতে মনোনয়নপত্র বাতিল করেছে: রিজভী

  • আপডেটের সময় : ০৮:১৩:০৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২ ডিসেম্বর ২০১৮
  • ১৪৭ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

ঢাকা প্রতিনিধি: বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী অভিযোগ করে বলেছেন, ক্ষমতার নেশায় যেভাবে বুদ হয়ে আছে সেখানে শেখ হাসিনা, তিনি কখনও অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন করতে চাইবেন না। এজন্য সরকার উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও দুরভিসন্ধিমূলক ভাবে খালেদা জিয়াসহ বিএনপির জনপ্রিয় নেতাদের নির্বাচন থেকে দূরে রাখাতে মনোনয়নপত্র বাতিল করেছে।

রবিবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এমন অভিযোগ করেন। এসময় তিনি বলেন, এগুলো বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়, সরকার পরিকল্পনা করেছে, একতরফা নির্বাচন করবে, গায়ের জোরে নির্বাচন করবে এবং জোর করে ক্ষমতায় থাকবে। সেজন্য এসব মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। তারপরও বলবো সব বাঁধ ভেঙে জনগণ এগিয়ে আসবে।

Trulli

রিজভী আরও বলেন, নবাবগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান খন্দকার আবু আশফাক ও দিনাজপুরের পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর হোসেন পদত্যাগ করে মনোনয়নপত্র জমা দিলেও তাদের পদত্যাগপত্র গৃহীত হয়নি বলে মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে।

সরকার হুঁশিয়ার করে তিনি বলেন, স্থানীয় সরকারের যিনি প্রধান তিনি যখনই পদত্যাগ করবেন সেটা গৃহীত হতে হবে। এটা আইন, এ আইন বরখেলাপ করে আপনারা তাদের মনোনয়ন বাতিল করছেন এর পরিণাম ভালো হবে না। অবিলম্বে তাদের মনোনয়নপত্র গ্রহণ করুন, তাদের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করুন।

রিজভী অভিযোগ করে জানান, শনিবার বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদারের নাটোরের বাড়িতে বৈঠক চলাকালে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা হামলা চালায়। ফেনী-২ আসনের বিএনপির প্রার্থী জয়নাল আবেদিনের বাসায় প্রবেশ ও বের হওয়ার সময় গ্রেফতার করা হচ্ছে। তিনি অবিলম্বে এসব গ্রেফতার বন্ধ ও গ্রেফতার হওয়াদের মুক্তির দাবি করেন।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, সহ-দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু প্রমুখ।

Adds Banner_2024

বিএনপির নেতাদের নির্বাচন থেকে দূরে রাখাতে মনোনয়নপত্র বাতিল করেছে: রিজভী

আপডেটের সময় : ০৮:১৩:০৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২ ডিসেম্বর ২০১৮

ঢাকা প্রতিনিধি: বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী অভিযোগ করে বলেছেন, ক্ষমতার নেশায় যেভাবে বুদ হয়ে আছে সেখানে শেখ হাসিনা, তিনি কখনও অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন করতে চাইবেন না। এজন্য সরকার উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও দুরভিসন্ধিমূলক ভাবে খালেদা জিয়াসহ বিএনপির জনপ্রিয় নেতাদের নির্বাচন থেকে দূরে রাখাতে মনোনয়নপত্র বাতিল করেছে।

রবিবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এমন অভিযোগ করেন। এসময় তিনি বলেন, এগুলো বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়, সরকার পরিকল্পনা করেছে, একতরফা নির্বাচন করবে, গায়ের জোরে নির্বাচন করবে এবং জোর করে ক্ষমতায় থাকবে। সেজন্য এসব মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। তারপরও বলবো সব বাঁধ ভেঙে জনগণ এগিয়ে আসবে।

Trulli

রিজভী আরও বলেন, নবাবগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান খন্দকার আবু আশফাক ও দিনাজপুরের পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর হোসেন পদত্যাগ করে মনোনয়নপত্র জমা দিলেও তাদের পদত্যাগপত্র গৃহীত হয়নি বলে মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে।

সরকার হুঁশিয়ার করে তিনি বলেন, স্থানীয় সরকারের যিনি প্রধান তিনি যখনই পদত্যাগ করবেন সেটা গৃহীত হতে হবে। এটা আইন, এ আইন বরখেলাপ করে আপনারা তাদের মনোনয়ন বাতিল করছেন এর পরিণাম ভালো হবে না। অবিলম্বে তাদের মনোনয়নপত্র গ্রহণ করুন, তাদের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করুন।

রিজভী অভিযোগ করে জানান, শনিবার বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদারের নাটোরের বাড়িতে বৈঠক চলাকালে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা হামলা চালায়। ফেনী-২ আসনের বিএনপির প্রার্থী জয়নাল আবেদিনের বাসায় প্রবেশ ও বের হওয়ার সময় গ্রেফতার করা হচ্ছে। তিনি অবিলম্বে এসব গ্রেফতার বন্ধ ও গ্রেফতার হওয়াদের মুক্তির দাবি করেন।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, সহ-দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু প্রমুখ।