রাজশাহী , সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
পবিত্র ইদুল আযহা উপলক্ষে আগামী ১৬ জুন ২০২৪ থেকে ২১ জুন ২০২৪ তারিখ পর্যন্ত বাংলার জনপদের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। ২২ জুন ২০২৪ তারিখ থেকে পুনরায় সকল কার্যক্রম চালু থাকবে। ***ধন্যবাদ**

মিরাজের ১০ উইকেট

  • আপডেটের সময় : ০৮:০৯:৪৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২ ডিসেম্বর ২০১৮
  • ৮৬ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

ক্রীড়া প্রতিবেদন:বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে ৫০৮ রানের জবাবে মিরাজের ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে ১১১ রানেই অলআউট হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৩৯৭ রানে পিছিয়ে ফলোঅনে পড়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিং করছে ক্যারিবীয়রা।

১৪৭ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

Trulli

নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবার কোনো দলকে ফলোঅনে ফেললো টাইগাররা। তবে ফের বিপর্যয়ে দলটি। প্রথম ইনিংসে ৭ উইকেটের পর দ্বিতীয় ইনিংসে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচে ইতোমধ্যে ১০ উইকেটে নেওয়ার কীর্তি গড়লেন মেহেদি হাসান মিরাজ। সর্বশেষ দেবেন্দ্র বিশুকে তিনি ফেরান। টেস্ট ক্যারিয়ারে এটি তার দ্বিতীয় ১০ উইকেট শিকার।

ক্যারিবীয়দের ষষ্ঠ উইকেটটি তুলে নেন নাঈম হাসান। এই টেস্টে এটিই তার প্রথম উইকেট। শেন ডওরিচকে সৌম্য সরকারের ক্যাচে পরিণত করেন চট্টগ্রাম টেস্টে অভিষেকে তরুণ হিসেবে পাঁচ উইকেট নিয়ে রেকর্ড গড়া এই তারকা।

চতুর্থ উইকেট জুটিতে শাহি হোপ ও শিমরন হেটমায়ার ৫৬ রান তুললেও, তাদের জুটি ভেঙে দেন মিরাজ। ব্যক্তিগত ২৫ রানে হোপকে সাকিবের ক্যাচে ফেরালে ৮৫ রানে পাঁচ উইকেট হারায় ক্যারিবীয়রা।

দুই ওপেনারকে ছেঁটে ফেলেন সাকিব ও মিরাজ। পরে এই টেস্টে নিজের প্রথম এবং দ্বিতীয় ও ক্যারিবীয় দ্বিতীয় ইনিংসের তৃতীয় ও চতুর্থ উইকেট লাভ করেন তাইজুল ইসলাম।

অধিনায়ক কার্লোস ব্র্যাথওয়েটকে এলবির ফাঁদে ফেলেন সাকিব। আর কাইরন পাওয়েল মিরাজে বল এগিয়ে মারতে গেলে মুশফিকের কাছে স্ট্যাম্পিং হন। তৃতীয় উইকেটে নামা সুনীল অ্যামব্রিসকে এলবিতে মাঠ ছাড়া করান তাইজুল। পরে রোস্টন চেজকে মুমিনুল হকে ক্যাচে বিদায় করেন এই বাঁহাতি। দ্বিতীয় ইনিংসে ২৯ রানে ৪ উইকেট হারালো দলটি।

এর আগে মিরপুর টেস্টে দুর্দান্ত দু’দিন পার করার পর তৃতীয় দিন ফিল্ডিংয় নেমেই ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ধসিয়ে দেয় বাংলাদেশ। যেখানে ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে ক্যারিবীয়দের ৭ উইকেট দখল করেন মেহেদি হাসান মিরাজ। ১৬ ওভারে মাত্র ৫৮ রানে ৭ উইকেট পেলেন তিনি। তার আগের ইনিংস সেরা ছিল ৭৭ রানে ৬ উইকেট।

৩৯ রান করা শিমরন হেটমায়ারকে নিজের ক্যাচেই বিদায় করে শুরু করেন মিরাজ। পরে দেবেন্দ্র বিশু ও কেমার রোচকেও দ্রুত মাঠ ছাড়া করান। ডরউইচকে এলবির ফাঁদে ফেলে ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ের নজির গড়েন। ক্যারিবীয়দের ইনিংসের ইতি টানেন অধিনায়ক সাকিব। লুইসকে এলবি ফাঁদে ফেলেন তিনি। ৩ উইকেট নিলেন সাকিব।

মিরপুর শের ই বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় দিন বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ক্যারিয়ার সেরা সেঞ্চুরিতে (১৩৬) সব উইকেট হারিয়ে ৫০৮ রানের বিশাল সংগ্রহ পায়।

জবাব দিতে নেমে শেষ বিকেলে ৭৫ রানে ৫ উইকেট হারানা দিশেহারা ক্যারিবীয়রা মাঠ ছাড়ে।

এর আগে চট্টগ্রাম টেস্টে ৬৪ রানে জিতে দুই ম্যাচ সিরিজে ১-০তে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ।

 

Adds Banner_2024

মিরাজের ১০ উইকেট

আপডেটের সময় : ০৮:০৯:৪৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২ ডিসেম্বর ২০১৮

ক্রীড়া প্রতিবেদন:বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে ৫০৮ রানের জবাবে মিরাজের ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে ১১১ রানেই অলআউট হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৩৯৭ রানে পিছিয়ে ফলোঅনে পড়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিং করছে ক্যারিবীয়রা।

১৪৭ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

Trulli

নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবার কোনো দলকে ফলোঅনে ফেললো টাইগাররা। তবে ফের বিপর্যয়ে দলটি। প্রথম ইনিংসে ৭ উইকেটের পর দ্বিতীয় ইনিংসে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচে ইতোমধ্যে ১০ উইকেটে নেওয়ার কীর্তি গড়লেন মেহেদি হাসান মিরাজ। সর্বশেষ দেবেন্দ্র বিশুকে তিনি ফেরান। টেস্ট ক্যারিয়ারে এটি তার দ্বিতীয় ১০ উইকেট শিকার।

ক্যারিবীয়দের ষষ্ঠ উইকেটটি তুলে নেন নাঈম হাসান। এই টেস্টে এটিই তার প্রথম উইকেট। শেন ডওরিচকে সৌম্য সরকারের ক্যাচে পরিণত করেন চট্টগ্রাম টেস্টে অভিষেকে তরুণ হিসেবে পাঁচ উইকেট নিয়ে রেকর্ড গড়া এই তারকা।

চতুর্থ উইকেট জুটিতে শাহি হোপ ও শিমরন হেটমায়ার ৫৬ রান তুললেও, তাদের জুটি ভেঙে দেন মিরাজ। ব্যক্তিগত ২৫ রানে হোপকে সাকিবের ক্যাচে ফেরালে ৮৫ রানে পাঁচ উইকেট হারায় ক্যারিবীয়রা।

দুই ওপেনারকে ছেঁটে ফেলেন সাকিব ও মিরাজ। পরে এই টেস্টে নিজের প্রথম এবং দ্বিতীয় ও ক্যারিবীয় দ্বিতীয় ইনিংসের তৃতীয় ও চতুর্থ উইকেট লাভ করেন তাইজুল ইসলাম।

অধিনায়ক কার্লোস ব্র্যাথওয়েটকে এলবির ফাঁদে ফেলেন সাকিব। আর কাইরন পাওয়েল মিরাজে বল এগিয়ে মারতে গেলে মুশফিকের কাছে স্ট্যাম্পিং হন। তৃতীয় উইকেটে নামা সুনীল অ্যামব্রিসকে এলবিতে মাঠ ছাড়া করান তাইজুল। পরে রোস্টন চেজকে মুমিনুল হকে ক্যাচে বিদায় করেন এই বাঁহাতি। দ্বিতীয় ইনিংসে ২৯ রানে ৪ উইকেট হারালো দলটি।

এর আগে মিরপুর টেস্টে দুর্দান্ত দু’দিন পার করার পর তৃতীয় দিন ফিল্ডিংয় নেমেই ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ধসিয়ে দেয় বাংলাদেশ। যেখানে ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে ক্যারিবীয়দের ৭ উইকেট দখল করেন মেহেদি হাসান মিরাজ। ১৬ ওভারে মাত্র ৫৮ রানে ৭ উইকেট পেলেন তিনি। তার আগের ইনিংস সেরা ছিল ৭৭ রানে ৬ উইকেট।

৩৯ রান করা শিমরন হেটমায়ারকে নিজের ক্যাচেই বিদায় করে শুরু করেন মিরাজ। পরে দেবেন্দ্র বিশু ও কেমার রোচকেও দ্রুত মাঠ ছাড়া করান। ডরউইচকে এলবির ফাঁদে ফেলে ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ের নজির গড়েন। ক্যারিবীয়দের ইনিংসের ইতি টানেন অধিনায়ক সাকিব। লুইসকে এলবি ফাঁদে ফেলেন তিনি। ৩ উইকেট নিলেন সাকিব।

মিরপুর শের ই বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় দিন বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ক্যারিয়ার সেরা সেঞ্চুরিতে (১৩৬) সব উইকেট হারিয়ে ৫০৮ রানের বিশাল সংগ্রহ পায়।

জবাব দিতে নেমে শেষ বিকেলে ৭৫ রানে ৫ উইকেট হারানা দিশেহারা ক্যারিবীয়রা মাঠ ছাড়ে।

এর আগে চট্টগ্রাম টেস্টে ৬৪ রানে জিতে দুই ম্যাচ সিরিজে ১-০তে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ।