রাজশাহী , মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
পবিত্র ইদুল আযহা উপলক্ষে আগামী ১৬ জুন ২০২৪ থেকে ২১ জুন ২০২৪ তারিখ পর্যন্ত বাংলার জনপদের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। ২২ জুন ২০২৪ তারিখ থেকে পুনরায় সকল কার্যক্রম চালু থাকবে। ***ধন্যবাদ**

নেত্রকোনায় যুবদল নেতার আত্মহত্যা

  • আপডেটের সময় : ০৭:২৬:৪১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ নভেম্বর ২০১৮
  • ১২৭ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

নেত্রকোনা প্রতিনিধি:  নেত্রকোনা সদর উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক ইফতে খাইরুল ইসলাম তিলক (৪৮) গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

বুধবার (২৮ নভেম্বর) রাতে আত্মহত্যা করেন তিনি। কলেজ শাখা ছাত্রদলের সাবেক জিএস তিলক শহরের বনুয়াপাড়া এলাকার মৃত আব্দুল জব্বার ফকিরের ছেলে।

Trulli

নেত্রকোনার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) মো. বোরহান উদ্দিন খান  ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিলকের মেয়ে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী নাফিউ ইসলাম নোলক  জানায়, রাতে নিজের ঘরে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় মাফলার দিয়ে ফাঁস দেন তিলক। টের পেয়ে মেয়ে নোলক ও তিলকের ভাতিজি দীপ্তি তাকে উদ্ধার করে আত্মীয়দের সহযোগিতায় নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। এসময় সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক টিটু রায় তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

Adds Banner_2024

নেত্রকোনায় যুবদল নেতার আত্মহত্যা

আপডেটের সময় : ০৭:২৬:৪১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ নভেম্বর ২০১৮

নেত্রকোনা প্রতিনিধি:  নেত্রকোনা সদর উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক ইফতে খাইরুল ইসলাম তিলক (৪৮) গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

বুধবার (২৮ নভেম্বর) রাতে আত্মহত্যা করেন তিনি। কলেজ শাখা ছাত্রদলের সাবেক জিএস তিলক শহরের বনুয়াপাড়া এলাকার মৃত আব্দুল জব্বার ফকিরের ছেলে।

Trulli

নেত্রকোনার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) মো. বোরহান উদ্দিন খান  ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিলকের মেয়ে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী নাফিউ ইসলাম নোলক  জানায়, রাতে নিজের ঘরে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় মাফলার দিয়ে ফাঁস দেন তিলক। টের পেয়ে মেয়ে নোলক ও তিলকের ভাতিজি দীপ্তি তাকে উদ্ধার করে আত্মীয়দের সহযোগিতায় নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। এসময় সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক টিটু রায় তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।