রাজশাহী , মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
তিস্তা মহাপরিকল্পনায় চীন-ভারতের ভারসাম্য কীভাবে? বাংলাদেশের সঙ্গে তিস্তার পানি বণ্টন সম্ভব নয় : মমতা মারা গেছেন ‘জল্লাদ’ শাহজাহান ‘প্রযুক্তিজ্ঞান ছাড়া দেশ বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে পারে না’ দুদকে হা‌জির হন‌নি বেনজীর, আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা রাজশাহীতে দেখা মিলল সাত রাসেলস ভাইপারের, পিটিয়ে মারলো এলাকাবাসী নগর যুবলীগের পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন শফিকুজ্জামান শফিক আওয়ামী লীগ জনগণের শক্তিতে বিশ্বাস করে : প্রধানমন্ত্রী বন্যায় স্থগিত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন পরীক্ষা আ’লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী একাদশে ভর্তির প্রথম ধাপের ফল প্রকাশ আজ দীর্ঘদিনের প্রচেষ্টায় বাস্তবায়ন হচ্ছে রাসিক মেয়র লিটনের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি রাজশাহী-কলকাতা ট্রেন চালুর ঘোষণা আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আগামীকাল দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে শেখ হাসিনাকে লাল গালিচা সংবর্ধনা রাজশাহী মহানগর যুবলীগের নেতৃত্বে মনি,রনি ও জেলায় সজল,সৈকত নির্বাচিত  প্রধানমন্ত্রীর কণ্ঠ শুনেই ছুটে এলো খরগোশের দল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে সব আন্তঃনগর ট্রেন রাসিক মেয়র ও তার পরিবারের সদস্যদের জড়িয়ে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছে উলামা কল্যাণ পরিষদ রাজশাহীতে ঈদের প্রধান জামাত সকাল সাড়ে ৭টায়

জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামানের সম্মানী বৃদ্ধি করল সরকার

  • আপডেটের সময় : ০২:১৪:৩৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৮ নভেম্বর ২০১৮
  • ৭০ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

জনপদ ডেস্কঃ জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামানের সম্মানী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক হিসেবে প্রাপ্য বেতন-ভাতা বিবেচনায় ১ লাখ ২৮ হাজার ৯৪০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৭ নভেম্বর) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করেছে।

Trulli

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের উপসচিব জিন্নাত রেহানার সই করা আদেশে বলা হয়, জাতীয় অধ্যাপকরা কোনও বেতন পান না, নির্ধারিত হারে সম্মানী পান। এ সম্মানীর পরিমাণ (৭৮ হাজার টাকা) বাড়ানোর আপাতত কোনও সুযোগ নেই। জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান আগে যেহেতেু ইমেরিটাস অধ্যাপক ছিলেন, সেহেতেু জাতীয় অধ্যাপক পদে নিয়োগ পাওয়ার পর তার আগের পদের সম্মানী ১ লাখ ২৮ হাজার ৯৪০ টাকা নিতে পারেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, জাতীয় অধ্যাপকের সম্মানী ৭৮ হাজার টাকা। এই সম্মানী বৃদ্ধির কোনও সুযোগ না থাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ড. আনিসুজ্জামান যে পরিমাণ বেতন-ভাতা পেতেন সেই পরিমাণ সম্মানীর জন্য অর্থ মন্ত্রণালয়ের সম্মতি চায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। অর্থ বিভাগের অনুমতির পর তাকে জাতীয় অধ্যাপকের নির্ধারিত সম্মানী থেকে বাড়িয়ে আগের পদের (ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক) সমপরিমাণ সম্মানী নির্ধারণ করা হয়।

উল্লেখ্য , গত ১৯ জুন ড. আনিসুজ্জামানসহ তিনজনকে জাতীয় অধ্যাপক নিয়োগ করে সরকার। বাকি দুজন হলেন ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশের (ইউল্যাব) ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম এবং বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী।

Adds Banner_2024

জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামানের সম্মানী বৃদ্ধি করল সরকার

আপডেটের সময় : ০২:১৪:৩৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৮ নভেম্বর ২০১৮

জনপদ ডেস্কঃ জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামানের সম্মানী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক হিসেবে প্রাপ্য বেতন-ভাতা বিবেচনায় ১ লাখ ২৮ হাজার ৯৪০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৭ নভেম্বর) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করেছে।

Trulli

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের উপসচিব জিন্নাত রেহানার সই করা আদেশে বলা হয়, জাতীয় অধ্যাপকরা কোনও বেতন পান না, নির্ধারিত হারে সম্মানী পান। এ সম্মানীর পরিমাণ (৭৮ হাজার টাকা) বাড়ানোর আপাতত কোনও সুযোগ নেই। জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান আগে যেহেতেু ইমেরিটাস অধ্যাপক ছিলেন, সেহেতেু জাতীয় অধ্যাপক পদে নিয়োগ পাওয়ার পর তার আগের পদের সম্মানী ১ লাখ ২৮ হাজার ৯৪০ টাকা নিতে পারেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, জাতীয় অধ্যাপকের সম্মানী ৭৮ হাজার টাকা। এই সম্মানী বৃদ্ধির কোনও সুযোগ না থাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ড. আনিসুজ্জামান যে পরিমাণ বেতন-ভাতা পেতেন সেই পরিমাণ সম্মানীর জন্য অর্থ মন্ত্রণালয়ের সম্মতি চায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। অর্থ বিভাগের অনুমতির পর তাকে জাতীয় অধ্যাপকের নির্ধারিত সম্মানী থেকে বাড়িয়ে আগের পদের (ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক) সমপরিমাণ সম্মানী নির্ধারণ করা হয়।

উল্লেখ্য , গত ১৯ জুন ড. আনিসুজ্জামানসহ তিনজনকে জাতীয় অধ্যাপক নিয়োগ করে সরকার। বাকি দুজন হলেন ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশের (ইউল্যাব) ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম এবং বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী।