রাজশাহী , মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
পবিত্র ইদুল আযহা উপলক্ষে আগামী ১৬ জুন ২০২৪ থেকে ২১ জুন ২০২৪ তারিখ পর্যন্ত বাংলার জনপদের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। ২২ জুন ২০২৪ তারিখ থেকে পুনরায় সকল কার্যক্রম চালু থাকবে। ***ধন্যবাদ**

টাঙ্গাইলে শিশু হত্যার দায়ে এক ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ড

  • আপডেটের সময় : ১০:৫২:২৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ নভেম্বর ২০১৮
  • ৯৩ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলে জুয়েল (৬) নামে একটি শিশুকে হত্যার দায়ে আব্দুর রহিম (৩৭) নামে এক ব্যক্তিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সেই সঙ্গে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়েছে।

আসামির উপস্থিতিতে মঙ্গলবার (২৭ নভেম্বর) বিকেলে টাঙ্গাইল জেলা ও দায়রা জজ মো. শওকত আলী চৌধুরী এ রায় দেন।

Trulli

আব্দুর রহিম টাঙ্গাইল সদর উপজেলার গালা ইউনিয়নের বিল মাগুরআটা গ্রামের মো. হাফিজ উদ্দিনের ছেলে।

টাঙ্গাইল আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর এস আকবর খান জানান, ২০১৬ সালের ১৮ নভেম্বর রাতে বিল মাগুরআটা গ্রামের শহিদুর রহমানের ছেলে জুয়েল (৬) ওই গ্রামে আয়োজিত ওয়াজ মাহফিলে গিয়ে নিখোঁজ হয়। পরদিন সকালে পাশের পিচুরিয়া গ্রামের একটি ধান ক্ষেত থেকে জুয়েলের লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ব্যাপারে নিহত জুয়েলের মা রোজিনা বেগম বাদী হয়ে টাঙ্গাইল সদর থানায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সদস্যরা ২০১৭ সালের ৪ জানুয়ারি আব্দুর রহিমকে গ্রেপ্তার করে। পরে আব্দুর রহিম শিশুটিকে হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেন। মামলার শুনানি ও সাক্ষ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে মঙ্গলবার এ রায় দেন আদালত।

বাদীপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা টাঙ্গাইল জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আইনজীবী আতাউর রহমান আজাদ।

Adds Banner_2024

টাঙ্গাইলে শিশু হত্যার দায়ে এক ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ড

আপডেটের সময় : ১০:৫২:২৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ নভেম্বর ২০১৮

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলে জুয়েল (৬) নামে একটি শিশুকে হত্যার দায়ে আব্দুর রহিম (৩৭) নামে এক ব্যক্তিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সেই সঙ্গে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়েছে।

আসামির উপস্থিতিতে মঙ্গলবার (২৭ নভেম্বর) বিকেলে টাঙ্গাইল জেলা ও দায়রা জজ মো. শওকত আলী চৌধুরী এ রায় দেন।

Trulli

আব্দুর রহিম টাঙ্গাইল সদর উপজেলার গালা ইউনিয়নের বিল মাগুরআটা গ্রামের মো. হাফিজ উদ্দিনের ছেলে।

টাঙ্গাইল আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর এস আকবর খান জানান, ২০১৬ সালের ১৮ নভেম্বর রাতে বিল মাগুরআটা গ্রামের শহিদুর রহমানের ছেলে জুয়েল (৬) ওই গ্রামে আয়োজিত ওয়াজ মাহফিলে গিয়ে নিখোঁজ হয়। পরদিন সকালে পাশের পিচুরিয়া গ্রামের একটি ধান ক্ষেত থেকে জুয়েলের লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ব্যাপারে নিহত জুয়েলের মা রোজিনা বেগম বাদী হয়ে টাঙ্গাইল সদর থানায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সদস্যরা ২০১৭ সালের ৪ জানুয়ারি আব্দুর রহিমকে গ্রেপ্তার করে। পরে আব্দুর রহিম শিশুটিকে হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেন। মামলার শুনানি ও সাক্ষ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে মঙ্গলবার এ রায় দেন আদালত।

বাদীপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা টাঙ্গাইল জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আইনজীবী আতাউর রহমান আজাদ।