রাজশাহী , শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
এমপি আনার হত্যা: আ.লীগ নেতা গ্যাস বাবুর দোষ স্বীকার টুং টাং শব্দে ব্যস্ত সময় পার করছে রাজশাহীর কামাররা রেমালে ক্ষতিগ্রস্ত ১২৭৪টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান যুগান্তর পত্রিকায় মেয়রসহ তার পরিবারকে নিয়ে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ ও ব্যাখ্যা কাল থেকে টানা ৫ দিনের ছুটিতে যাচ্ছেন সরকারি চাকরিজীবীরা ফের দি‌ল্লি যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বগুড়ায় ব্যাংকের সিন্দুক কেটে ২৯ লাখ টাকা লুট বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যে চলবে যাত্রীবাহী ফেরি শেখ হাসিনাকে ‘কোয়ালিশন অব লিডার্স’-এ চায় গ্লোবাল ফান্ড তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীনের কাছে ঋণ চেয়েছি : প্রধানমন্ত্রী দুর্যোগ মোকাবিলায় ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা জানালেন প্রধানমন্ত্রী বেনজীর পরিবারের আরও সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ বড় দুঃসংবাদ পেলেন সাকিব পলাতক আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে : প্রধানমন্ত্রী কুয়েতে ভবনে ভয়াবহ আগুন, নিহত অন্তত ৩৯ আনার হত্যাকাণ্ড : ডিবি কার্যালয়ে ঝিনাইদহ আ. লীগ সম্পাদক মিন্টু যাদের জমিসহ ঘর করে দেওয়া হয়েছে, তাদের জীবন বদলে গেছে: প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি তৈরি করে দেব : প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার পাচ্ছে সাড়ে ১৮ হাজার পরিবার আজ শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস

‘পাকিস্তানের মতো বলির পাঁঠা আর কোথাও পাবে যুক্তরাষ্ট্র?’

  • আপডেটের সময় : ০৬:০৪:৪২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮
  • ৮৩ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ট্রাম্পের শাসনামলে যুক্তরাষ্ট্র ও পাকিস্তানের সম্পর্ক প্রায় তলানিতে। সম্প্রতি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ওসামা বিন লাদেনকে টেনে এনে পাকিস্তানকে ভর্ৎসনা করায় সম্পর্ক আরও তলানিতে গিয়ে ঠেকে। ট্রাম্পের সেই মন্তব্যের যোগ্য উত্তর দিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান৷ তবে এখানেই বিতর্কে থেকে থাকছে না। ডোনাল্ড ট্রাম্পের মন্তব্যের প্রতিবাদে ইসলামাবাদে নিযুক্ত মার্কিন দূতকে ডেকে পাঠাল ইমরান খানের বিদেশ মন্ত্রালয়।

পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রালয় বিবৃতি দিয়ে জানায়, মার্কিন দূত পল জোনসকে ডেকে পাঠানো হয়েছে। কোন প্রমাণ ছাড়াই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যে অন্যায্য অভিযোগ তোলা হয়েছে তার প্রতিবাদ জানাতে মার্কিন দূতকে ডাকা হয়েছে।

Trulli

উল্লেখ্য, গত রবিবার ট্রাম্প সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে পাকিস্তানের কড়া সমালোচনা করেন। তিনি জানান, পাকিস্তান আমেরিকার জন্য কিছুই করেনি। অথচ তারা মিলিয়ন ডলার আর্থিক সাহায্য পেয়েই গেছে। ৯/১১র হামলাকারী লাদেনকে পাকিস্তানে আশ্রয় নিয়েছিল। পাকিস্তান সেটা জানত, কিন্তু আমেরিকাকে কিছুই জানায়নি তারা।

ট্রাম্পের ঢিলের জবাবে পাটকেল ছুঁড়ে মেরেছেন ইমরানও। মার্কিন প্রেসিডেন্টকে লম্বা তালিকা ধরিয়ে দেখিয়ে দেন পাকিস্তান আমেরিকার জন্য কী কী করেছে। একের পর এক ট্যুইট করে ট্রাম্পকে ইমরান মনে করিয়ে দেন তাদের জন্য পাকিস্তানকে কতটা ‘ত্যাগ স্বীকার’ করতে হয়েছে।

ট্যুইটে পাক প্রধানমন্ত্রী লেখেন, সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের লড়াইয়ে পাকিস্তানের ৭৫ হাজার মানুষ মারা গেছে। বাড়ি ঘর খুইয়েছে। অর্থনীতি ধ্বংস হয়ে গেছে। তারপরেও পাকিস্তান যুক্তরাষ্ট্রের পাশে থেকেছে। আর কোন সহযোগী দেশ এমন ত্যাগ স্বীকার করেছে? এমন বলির পাঁঠা আর কোথাও পাবে যুক্তরাষ্ট্র?

Adds Banner_2024

‘পাকিস্তানের মতো বলির পাঁঠা আর কোথাও পাবে যুক্তরাষ্ট্র?’

আপডেটের সময় : ০৬:০৪:৪২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ট্রাম্পের শাসনামলে যুক্তরাষ্ট্র ও পাকিস্তানের সম্পর্ক প্রায় তলানিতে। সম্প্রতি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ওসামা বিন লাদেনকে টেনে এনে পাকিস্তানকে ভর্ৎসনা করায় সম্পর্ক আরও তলানিতে গিয়ে ঠেকে। ট্রাম্পের সেই মন্তব্যের যোগ্য উত্তর দিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান৷ তবে এখানেই বিতর্কে থেকে থাকছে না। ডোনাল্ড ট্রাম্পের মন্তব্যের প্রতিবাদে ইসলামাবাদে নিযুক্ত মার্কিন দূতকে ডেকে পাঠাল ইমরান খানের বিদেশ মন্ত্রালয়।

পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রালয় বিবৃতি দিয়ে জানায়, মার্কিন দূত পল জোনসকে ডেকে পাঠানো হয়েছে। কোন প্রমাণ ছাড়াই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যে অন্যায্য অভিযোগ তোলা হয়েছে তার প্রতিবাদ জানাতে মার্কিন দূতকে ডাকা হয়েছে।

Trulli

উল্লেখ্য, গত রবিবার ট্রাম্প সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে পাকিস্তানের কড়া সমালোচনা করেন। তিনি জানান, পাকিস্তান আমেরিকার জন্য কিছুই করেনি। অথচ তারা মিলিয়ন ডলার আর্থিক সাহায্য পেয়েই গেছে। ৯/১১র হামলাকারী লাদেনকে পাকিস্তানে আশ্রয় নিয়েছিল। পাকিস্তান সেটা জানত, কিন্তু আমেরিকাকে কিছুই জানায়নি তারা।

ট্রাম্পের ঢিলের জবাবে পাটকেল ছুঁড়ে মেরেছেন ইমরানও। মার্কিন প্রেসিডেন্টকে লম্বা তালিকা ধরিয়ে দেখিয়ে দেন পাকিস্তান আমেরিকার জন্য কী কী করেছে। একের পর এক ট্যুইট করে ট্রাম্পকে ইমরান মনে করিয়ে দেন তাদের জন্য পাকিস্তানকে কতটা ‘ত্যাগ স্বীকার’ করতে হয়েছে।

ট্যুইটে পাক প্রধানমন্ত্রী লেখেন, সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের লড়াইয়ে পাকিস্তানের ৭৫ হাজার মানুষ মারা গেছে। বাড়ি ঘর খুইয়েছে। অর্থনীতি ধ্বংস হয়ে গেছে। তারপরেও পাকিস্তান যুক্তরাষ্ট্রের পাশে থেকেছে। আর কোন সহযোগী দেশ এমন ত্যাগ স্বীকার করেছে? এমন বলির পাঁঠা আর কোথাও পাবে যুক্তরাষ্ট্র?