রাজশাহী , সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
পবিত্র ইদুল আযহা উপলক্ষে আগামী ১৬ জুন ২০২৪ থেকে ২১ জুন ২০২৪ তারিখ পর্যন্ত বাংলার জনপদের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। ২২ জুন ২০২৪ তারিখ থেকে পুনরায় সকল কার্যক্রম চালু থাকবে। ***ধন্যবাদ**

৫ ‘নি’ পালনের নির্দেশ দিলেন : মাহবুব তালুকদার

  • আপডেটের সময় : ০৬:৩৬:০৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮
  • ২৮৩ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

জনপদ ডেস্ক:

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য রিটার্নিং কর্মকর্তাদের নির্দ্বিধায় পাঁচটি ‘নি’ পালনের নির্দেশ দিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার। ১৩ নভেম্বর,মঙ্গলবার কমিশনে রিটার্নিং কর্মকর্তাদের নির্বাচনি প্রশিক্ষণকালে তিনি এসব কথা বলেন।

Trulli

নির্বাচন কমিশন মাহবুব তালুকদার বলেন, ‘একজন বিচারকের মতো নির্বাচন কমিশনার হিসেবে সংবিধান অনুযায়ী দায়িত্ব পালনে আমরা যে, শপথ নিয়েছি, আপনারাও আমাদের সেই শপথের অংশীদার।

আপনাদের মাধ্যমে আমাদের শপথ বাস্তবায়ন করতে হয়। এক্ষেত্রে আপনাদের কাজের কোনও ব্যত্যয় ঘটার অবকাশ নেই।’

অবাধ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন ব্যবস্থাপনাকে পাঁচটি ‘নি’ দিয়ে ব্যাখ্যা করে মাহবুব তালুকদার বলেন, ‘প্রথম ‘নি’ হচ্ছে নিশ্চয়তা। এটা নির্বাচন সুষ্ঠু হওয়ার নিশ্চয়তা।

এই নিশ্চয়তার অর্থ ভোটার ও রাজনৈতিক দলের আস্থার সৃষ্টি। দ্বিতীয় ‘নি’ হচ্ছে নিরপেক্ষতা। নির্বিঘ্নে ভোট দেওয়া ও কার্যক্রম চালানোর প্রতিশ্রুতি কমিশনের পক্ষে এই নিরপেক্ষতা অপরিহার্য।তৃতীয় ‘নি’ হচ্ছে নিরাপত্তা।

এই নিরাপত্তা ভোটার, রাজনৈতিক দল ও অন্যান্য অংশীজনের নিরাপত্তার প্রতিশ্রুতি। এ বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে কার্যকরভাবে নির্বাচনকালে কমিশনে প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে নিয়ে আসা দরকার।

চতুর্থ ‘নি’ হচ্ছে নিয়ম-নীতি। নির্বাচন সংশ্লিষ্ট সবাইকে কঠোর বিধি-বিধান প্রতিপালনের আওতায় আনা প্রয়োজন। এবং পঞ্চম ‘নি’ হচ্ছে নিয়ন্ত্রণ। নির্বাচন অবশ্যই নির্বাচন কমিশনের নিয়ন্ত্রণে থাকতে হবে।’

 

Adds Banner_2024

৫ ‘নি’ পালনের নির্দেশ দিলেন : মাহবুব তালুকদার

আপডেটের সময় : ০৬:৩৬:০৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮

জনপদ ডেস্ক:

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য রিটার্নিং কর্মকর্তাদের নির্দ্বিধায় পাঁচটি ‘নি’ পালনের নির্দেশ দিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার। ১৩ নভেম্বর,মঙ্গলবার কমিশনে রিটার্নিং কর্মকর্তাদের নির্বাচনি প্রশিক্ষণকালে তিনি এসব কথা বলেন।

Trulli

নির্বাচন কমিশন মাহবুব তালুকদার বলেন, ‘একজন বিচারকের মতো নির্বাচন কমিশনার হিসেবে সংবিধান অনুযায়ী দায়িত্ব পালনে আমরা যে, শপথ নিয়েছি, আপনারাও আমাদের সেই শপথের অংশীদার।

আপনাদের মাধ্যমে আমাদের শপথ বাস্তবায়ন করতে হয়। এক্ষেত্রে আপনাদের কাজের কোনও ব্যত্যয় ঘটার অবকাশ নেই।’

অবাধ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন ব্যবস্থাপনাকে পাঁচটি ‘নি’ দিয়ে ব্যাখ্যা করে মাহবুব তালুকদার বলেন, ‘প্রথম ‘নি’ হচ্ছে নিশ্চয়তা। এটা নির্বাচন সুষ্ঠু হওয়ার নিশ্চয়তা।

এই নিশ্চয়তার অর্থ ভোটার ও রাজনৈতিক দলের আস্থার সৃষ্টি। দ্বিতীয় ‘নি’ হচ্ছে নিরপেক্ষতা। নির্বিঘ্নে ভোট দেওয়া ও কার্যক্রম চালানোর প্রতিশ্রুতি কমিশনের পক্ষে এই নিরপেক্ষতা অপরিহার্য।তৃতীয় ‘নি’ হচ্ছে নিরাপত্তা।

এই নিরাপত্তা ভোটার, রাজনৈতিক দল ও অন্যান্য অংশীজনের নিরাপত্তার প্রতিশ্রুতি। এ বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে কার্যকরভাবে নির্বাচনকালে কমিশনে প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে নিয়ে আসা দরকার।

চতুর্থ ‘নি’ হচ্ছে নিয়ম-নীতি। নির্বাচন সংশ্লিষ্ট সবাইকে কঠোর বিধি-বিধান প্রতিপালনের আওতায় আনা প্রয়োজন। এবং পঞ্চম ‘নি’ হচ্ছে নিয়ন্ত্রণ। নির্বাচন অবশ্যই নির্বাচন কমিশনের নিয়ন্ত্রণে থাকতে হবে।’