রাজশাহী , সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
পবিত্র ইদুল আযহা উপলক্ষে আগামী ১৬ জুন ২০২৪ থেকে ২১ জুন ২০২৪ তারিখ পর্যন্ত বাংলার জনপদের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। ২২ জুন ২০২৪ তারিখ থেকে পুনরায় সকল কার্যক্রম চালু থাকবে। ***ধন্যবাদ**

বয়স ১০ হলেই জাতীয় পরিচয়পত্র দেবে ইসি

  • আপডেটের সময় : ০৬:৫৭:৫৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৮ জানুয়ারী ২০১৯
  • ৭৫ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

ঢাকা প্রতিনিধি: জাতীয় পরিচয়পত্র অনুযায়ী যাতে সবাই স্কুলে ভর্তি হতে পারে সেই উদ্যোগ নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এজন্য কারো বয়স ১০ বছর হলেই তাকে জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে ইসি। এসব শিশুকে অস্থায়ী জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়া হবে। আর এটি চলতি বছর থেকেই শুরু হবে।

সূত্র জানায়, অনেক সময় স্কুল-কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের নাম ও বয়সের সঙ্গে এনআইডিতে দেয়া নাম ও বয়সের মিল থাকে না। বিষয়টি মাথায় রেখে শিশুদের এনআইডি দেয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানটি।

Trulli

পরিকল্পনা অনুযায়ী ১০ বছর বয়সের শিশুদের জাতীয় পরিচয়পত্র দিতে প্রতিটি স্কুলে যাবে ইসি। শিক্ষকদের মাধ্যমে ফরম পূরণ করা হবে। আর যেসব শিশুরা পড়াশুনা করে না তাদেরকে নির্দিষ্ট দিনে উপজেলা/থানা নির্বাচন, ইউনিয়ন পরিষদ অফিসে নিবন্ধন করা হবে।

এ বিষয়ে ইসির যুগ্ম-সচিব ও জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের পরিচালক (অপারেসন্স) মো. আবদুল বাতেন বলেন, চলতি বছর ১০ বছর থেকে ১৮ বছরের কম বয়সীদের নিবন্ধন করে তাদেরকে অস্থায়ী লেমিনেটেড জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে ইসি।

তিনি বলেন, পরবর্তীতে বয়স ১৮ বছর হলে তখন স্বয়ংক্রিয়ভাবেই তারা ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হবে এবং অস্থায়ী কার্ডের পরিবর্তে তাদেরকে স্মার্টকার্ড দেয়া হবে। এ কাজের জন্য ইসির প্রস্তুতি আছে।

Adds Banner_2024

বয়স ১০ হলেই জাতীয় পরিচয়পত্র দেবে ইসি

আপডেটের সময় : ০৬:৫৭:৫৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৮ জানুয়ারী ২০১৯

ঢাকা প্রতিনিধি: জাতীয় পরিচয়পত্র অনুযায়ী যাতে সবাই স্কুলে ভর্তি হতে পারে সেই উদ্যোগ নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এজন্য কারো বয়স ১০ বছর হলেই তাকে জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে ইসি। এসব শিশুকে অস্থায়ী জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়া হবে। আর এটি চলতি বছর থেকেই শুরু হবে।

সূত্র জানায়, অনেক সময় স্কুল-কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের নাম ও বয়সের সঙ্গে এনআইডিতে দেয়া নাম ও বয়সের মিল থাকে না। বিষয়টি মাথায় রেখে শিশুদের এনআইডি দেয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানটি।

Trulli

পরিকল্পনা অনুযায়ী ১০ বছর বয়সের শিশুদের জাতীয় পরিচয়পত্র দিতে প্রতিটি স্কুলে যাবে ইসি। শিক্ষকদের মাধ্যমে ফরম পূরণ করা হবে। আর যেসব শিশুরা পড়াশুনা করে না তাদেরকে নির্দিষ্ট দিনে উপজেলা/থানা নির্বাচন, ইউনিয়ন পরিষদ অফিসে নিবন্ধন করা হবে।

এ বিষয়ে ইসির যুগ্ম-সচিব ও জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের পরিচালক (অপারেসন্স) মো. আবদুল বাতেন বলেন, চলতি বছর ১০ বছর থেকে ১৮ বছরের কম বয়সীদের নিবন্ধন করে তাদেরকে অস্থায়ী লেমিনেটেড জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে ইসি।

তিনি বলেন, পরবর্তীতে বয়স ১৮ বছর হলে তখন স্বয়ংক্রিয়ভাবেই তারা ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হবে এবং অস্থায়ী কার্ডের পরিবর্তে তাদেরকে স্মার্টকার্ড দেয়া হবে। এ কাজের জন্য ইসির প্রস্তুতি আছে।