রাজশাহী , সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
পবিত্র ইদুল আযহা উপলক্ষে আগামী ১৬ জুন ২০২৪ থেকে ২১ জুন ২০২৪ তারিখ পর্যন্ত বাংলার জনপদের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। ২২ জুন ২০২৪ তারিখ থেকে পুনরায় সকল কার্যক্রম চালু থাকবে। ***ধন্যবাদ**

মাদারীপুরে ডাকাতির ঘটনায় আটক ১

  • আপডেটের সময় : ১১:৩৫:৫৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১২ নভেম্বর ২০১৮
  • ২৭৭ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

জনপদ ডেস্ক:

মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার খালিয়া ইউনিয়নের উল্লাবাড়ি গ্রামে রবিবার গভীর রাতে গণডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতিতে বাধা দেয়ায় ডাকাত দলের হামলায় আহত হয়েছেন অন্তত ৬। এ সময় এলাকাবাসী ধাওয়া করে এক ডাকাতকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোর্পদ করেছে। খবর পেয়ে মাদারীপু পুলিশ ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছেন।

Trulli

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, রবিবার গভীর রাতে রাজৈর উপজেলার খালিয়া ইউনিয়নের উল্লাবাড়ী গ্রামের কয়েকটি বাড়িতে একযোগে গণ-ডাকাতি করে ১৫ থেকে ২০ জনের একদল মুখোশধারী ডাকাত। প্রথমে তারা বিন্দু মন্ডলের বাড়ীতে সিঁধ কেটে ঘরে ঢুকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নগদ ৫ হাজার টাকা ও মোবাইল ফোন নিয়ে যায়। পরে একই বাড়ীর উপর প্রেমচাঁদ শীলের ঘরে সিঁধ কেটে ঢুকে অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে ৩০ হাজার টাকা নিয়ে যায়।

এই দুই ঘর থেকে টাকা-পয়সা ও মালামাল নিয়ে অন্য বাড়ীতে ডাকাতির প্রস্তুতি নিতে থাকে। এ সময় ওই এলাকার সুধাংশু ঘরামী ডাকাতির ঘটনা টের পেয়ে এগিয়ে আসেন। এ সময় তাকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে ডাকাতরা। তার ডাক-চিৎকারে আশপাশের লোকজন বাঁধা দিতে এগিয়ে এলে ডাকাতরা তাদেরকেও এলোপতারী কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যায়। এলাকাবাসীর ধাওয়ায় পালিয়ে যাওয়ার সময় মাহবুব খান ((৩৫) নামের এক ডাকাতকে আটক করে এলাকাবাসী। ডাকাত দলের সশস্ত্র হামলায় আহত হন অন্তত ৬ জন।

রাজৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জিয়াউল মোর্শেদ বলেন, আহতদের উদ্ধার করে রাজৈর উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আটক ডাকাতের বাড়ি গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার খান্দারপাড়া গ্রামে। এ ঘটনার সাথে জড়িত বাকিদের ধরতে পুলিশ মাঠে নেমেছে।

Adds Banner_2024

মাদারীপুরে ডাকাতির ঘটনায় আটক ১

আপডেটের সময় : ১১:৩৫:৫৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১২ নভেম্বর ২০১৮

জনপদ ডেস্ক:

মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার খালিয়া ইউনিয়নের উল্লাবাড়ি গ্রামে রবিবার গভীর রাতে গণডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতিতে বাধা দেয়ায় ডাকাত দলের হামলায় আহত হয়েছেন অন্তত ৬। এ সময় এলাকাবাসী ধাওয়া করে এক ডাকাতকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোর্পদ করেছে। খবর পেয়ে মাদারীপু পুলিশ ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছেন।

Trulli

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, রবিবার গভীর রাতে রাজৈর উপজেলার খালিয়া ইউনিয়নের উল্লাবাড়ী গ্রামের কয়েকটি বাড়িতে একযোগে গণ-ডাকাতি করে ১৫ থেকে ২০ জনের একদল মুখোশধারী ডাকাত। প্রথমে তারা বিন্দু মন্ডলের বাড়ীতে সিঁধ কেটে ঘরে ঢুকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নগদ ৫ হাজার টাকা ও মোবাইল ফোন নিয়ে যায়। পরে একই বাড়ীর উপর প্রেমচাঁদ শীলের ঘরে সিঁধ কেটে ঢুকে অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে ৩০ হাজার টাকা নিয়ে যায়।

এই দুই ঘর থেকে টাকা-পয়সা ও মালামাল নিয়ে অন্য বাড়ীতে ডাকাতির প্রস্তুতি নিতে থাকে। এ সময় ওই এলাকার সুধাংশু ঘরামী ডাকাতির ঘটনা টের পেয়ে এগিয়ে আসেন। এ সময় তাকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে ডাকাতরা। তার ডাক-চিৎকারে আশপাশের লোকজন বাঁধা দিতে এগিয়ে এলে ডাকাতরা তাদেরকেও এলোপতারী কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যায়। এলাকাবাসীর ধাওয়ায় পালিয়ে যাওয়ার সময় মাহবুব খান ((৩৫) নামের এক ডাকাতকে আটক করে এলাকাবাসী। ডাকাত দলের সশস্ত্র হামলায় আহত হন অন্তত ৬ জন।

রাজৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জিয়াউল মোর্শেদ বলেন, আহতদের উদ্ধার করে রাজৈর উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আটক ডাকাতের বাড়ি গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার খান্দারপাড়া গ্রামে। এ ঘটনার সাথে জড়িত বাকিদের ধরতে পুলিশ মাঠে নেমেছে।