রাজশাহী , শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
রাজশাহীতে র‌্যাবের জালে ২৪ জুয়াড়ি লাব্বাইক ধ্বনিতে মুখর আরাফাত ময়দান পবিত্র হজ আজ এমপি আনার হত্যা: আ.লীগ নেতা গ্যাস বাবুর দোষ স্বীকার টুং টাং শব্দে ব্যস্ত সময় পার করছে রাজশাহীর কামাররা রেমালে ক্ষতিগ্রস্ত ১২৭৪টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান যুগান্তর পত্রিকায় মেয়রসহ তার পরিবারকে নিয়ে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ ও ব্যাখ্যা কাল থেকে টানা ৫ দিনের ছুটিতে যাচ্ছেন সরকারি চাকরিজীবীরা ফের দি‌ল্লি যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বগুড়ায় ব্যাংকের সিন্দুক কেটে ২৯ লাখ টাকা লুট বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যে চলবে যাত্রীবাহী ফেরি শেখ হাসিনাকে ‘কোয়ালিশন অব লিডার্স’-এ চায় গ্লোবাল ফান্ড তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীনের কাছে ঋণ চেয়েছি : প্রধানমন্ত্রী দুর্যোগ মোকাবিলায় ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা জানালেন প্রধানমন্ত্রী বেনজীর পরিবারের আরও সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ বড় দুঃসংবাদ পেলেন সাকিব পলাতক আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে : প্রধানমন্ত্রী কুয়েতে ভবনে ভয়াবহ আগুন, নিহত অন্তত ৩৯ আনার হত্যাকাণ্ড : ডিবি কার্যালয়ে ঝিনাইদহ আ. লীগ সম্পাদক মিন্টু যাদের জমিসহ ঘর করে দেওয়া হয়েছে, তাদের জীবন বদলে গেছে: প্রধানমন্ত্রী

৪৮ উপজেলায় নির্বাচন প্রস্তুতি সম্পন্ন

  • আপডেটের সময় : ০৬:১৭:৫৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৬ জানুয়ারী ২০১৯
  • ৬১ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

ঢাকা প্রতিনিধি: চট্টগ্রাম, তিন পার্বত্য জেলা ও কক্সবাজারের ৪৮টি উপজেলার নির্বাচনের জন্য সব ধরনের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন। মার্চে ভোটগ্রহণের লক্ষে ভোটার তালিকা চূড়ান্ত করার পর এখন চলছে কর্মকর্তা নিয়োগ এবং ভোট কেন্দ্র প্রস্তুতির কাজ।

চট্টগ্রামের ১৭টি উপজেলার মধ্যে কর্ণফুলী ছাড়া বাকি ১৬টি, রাঙ্গামাটি’র ৮টি, বান্দরবানের ৭টি, খাগড়াছড়ির ৯টি এবং কক্সবাজারের ৮টি উপজেলার মেয়াদ শেষ হয়েছে কয়েক মাস আগেই। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কারণে সময় অনুযায়ী নির্বাচন সম্ভব হয়নি উপজেলাগুলোতে। মেয়াদ পেরিয়ে যাওয়ায় এখন চলছে এসব উপজেলার নির্বাচন প্রক্রিয়া।

Trulli

চট্টগ্রাম উপজেলা ১৬টি ভোট কেন্দ্র ১২৯৫টি মোট ভোটার ৩৬,২৪,৯২১ জন। কক্সবাজার উপজেলা ৮টি ভোট কেন্দ্র ৫১৩টি মোট ভোটার ১৩,৬৫,২০৪ জন। রাঙ্গামাটি উপজেলা ৮টি ২০৩টি ভোট কেন্দ্র মোট ভোটার ৪,১৭,৩৫৯ জন। বান্দরবান উপজেলা ৭টি ভোট কেন্দ্র ১৭৬টি মোট ভোটার ২,৪৬,৭৫৪ জন। খাগড়াছড়ি উপজেলা ৯টি ভোট কেন্দ্র ১৮৭টিমোট ভোটার ৪,৪১,৭৪৪ জন।

চট্টগ্রাম আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ হাসানুজ্জামান বলেন, ইতোমধ্যে ভোটকেন্দ্র চূড়ান্ত করার প্রস্তুতি গ্রহণ করেছি। আমাদের অফিসাররা সার্বিক বিবেচনায় অনেক সক্ষম, তারা যে দায়িত্ব পালনে প্রস্তুত আছে।

স্থানীয় সরকারের অধীন হলেও গত উপজেলা নির্বাচন থেকেই চেয়ারম্যান পদে সরাসরি দলীয় প্রতীকেই নির্বাচন করছেন প্রার্থীরা। এবারও সে রকই হবে। কিন্তু জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নানা অনিয়মের বিষয় উল্লেখ করে উপজেলা নির্বাচনে থাকছে না বিএনপি। তবে পুরোদমে মাঠে রয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশে নির্বাচন বলে কিছু নাই। যেখানে নির্বাচন বলে কিছু নাই সেখানে নির্বাচনে অংশগ্রহণের প্রশ্ন আসছে কই থেকে।

দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান চৌধুরী বলেন, আমাদের প্রস্তুতি চলছে সব জায়গায়। আমরা দেখবো দলের মধ্যে যোগ্য এবং দলের জন্য নিবেদিত ছিল যারা তাদেরকে আমরা সুযোগ দেব।

নির্বাচনকে অংশগ্রহণমূলক করার জন্য রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে আস্থা ফিরিয়ে আনতে নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা রাখা উচিত বলে মনে করছেন এ নির্বাচন বিশ্লেষক।

চট্টগ্রাম সনাক-টিআইবির সভাপতি অ্যাডভোকেট আকতার কবীর চৌধুরী বলেন, নির্বাচন কমিশন যে প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে তারও দায়িত্ব হচ্ছে এই অবস্থা কাটিয়ে উঠা, বিশ্বাস এবং আস্থার জায়গা করা।

৪৮টি উপজেলায় মোট ভোটার ৬০ লাখ ৯৬ হাজার। আর ভোট কেন্দ্র থাকবে ২ হাজার ৩শ ৭৪টি। ভোটাররা প্রতিটি উপজেলায় একজন করে চেয়ারম্যান, একজন মহিলাসহ দু’জন ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত করবেন।

Adds Banner_2024

৪৮ উপজেলায় নির্বাচন প্রস্তুতি সম্পন্ন

আপডেটের সময় : ০৬:১৭:৫৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৬ জানুয়ারী ২০১৯

ঢাকা প্রতিনিধি: চট্টগ্রাম, তিন পার্বত্য জেলা ও কক্সবাজারের ৪৮টি উপজেলার নির্বাচনের জন্য সব ধরনের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন। মার্চে ভোটগ্রহণের লক্ষে ভোটার তালিকা চূড়ান্ত করার পর এখন চলছে কর্মকর্তা নিয়োগ এবং ভোট কেন্দ্র প্রস্তুতির কাজ।

চট্টগ্রামের ১৭টি উপজেলার মধ্যে কর্ণফুলী ছাড়া বাকি ১৬টি, রাঙ্গামাটি’র ৮টি, বান্দরবানের ৭টি, খাগড়াছড়ির ৯টি এবং কক্সবাজারের ৮টি উপজেলার মেয়াদ শেষ হয়েছে কয়েক মাস আগেই। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কারণে সময় অনুযায়ী নির্বাচন সম্ভব হয়নি উপজেলাগুলোতে। মেয়াদ পেরিয়ে যাওয়ায় এখন চলছে এসব উপজেলার নির্বাচন প্রক্রিয়া।

Trulli

চট্টগ্রাম উপজেলা ১৬টি ভোট কেন্দ্র ১২৯৫টি মোট ভোটার ৩৬,২৪,৯২১ জন। কক্সবাজার উপজেলা ৮টি ভোট কেন্দ্র ৫১৩টি মোট ভোটার ১৩,৬৫,২০৪ জন। রাঙ্গামাটি উপজেলা ৮টি ২০৩টি ভোট কেন্দ্র মোট ভোটার ৪,১৭,৩৫৯ জন। বান্দরবান উপজেলা ৭টি ভোট কেন্দ্র ১৭৬টি মোট ভোটার ২,৪৬,৭৫৪ জন। খাগড়াছড়ি উপজেলা ৯টি ভোট কেন্দ্র ১৮৭টিমোট ভোটার ৪,৪১,৭৪৪ জন।

চট্টগ্রাম আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ হাসানুজ্জামান বলেন, ইতোমধ্যে ভোটকেন্দ্র চূড়ান্ত করার প্রস্তুতি গ্রহণ করেছি। আমাদের অফিসাররা সার্বিক বিবেচনায় অনেক সক্ষম, তারা যে দায়িত্ব পালনে প্রস্তুত আছে।

স্থানীয় সরকারের অধীন হলেও গত উপজেলা নির্বাচন থেকেই চেয়ারম্যান পদে সরাসরি দলীয় প্রতীকেই নির্বাচন করছেন প্রার্থীরা। এবারও সে রকই হবে। কিন্তু জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নানা অনিয়মের বিষয় উল্লেখ করে উপজেলা নির্বাচনে থাকছে না বিএনপি। তবে পুরোদমে মাঠে রয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশে নির্বাচন বলে কিছু নাই। যেখানে নির্বাচন বলে কিছু নাই সেখানে নির্বাচনে অংশগ্রহণের প্রশ্ন আসছে কই থেকে।

দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান চৌধুরী বলেন, আমাদের প্রস্তুতি চলছে সব জায়গায়। আমরা দেখবো দলের মধ্যে যোগ্য এবং দলের জন্য নিবেদিত ছিল যারা তাদেরকে আমরা সুযোগ দেব।

নির্বাচনকে অংশগ্রহণমূলক করার জন্য রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে আস্থা ফিরিয়ে আনতে নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা রাখা উচিত বলে মনে করছেন এ নির্বাচন বিশ্লেষক।

চট্টগ্রাম সনাক-টিআইবির সভাপতি অ্যাডভোকেট আকতার কবীর চৌধুরী বলেন, নির্বাচন কমিশন যে প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে তারও দায়িত্ব হচ্ছে এই অবস্থা কাটিয়ে উঠা, বিশ্বাস এবং আস্থার জায়গা করা।

৪৮টি উপজেলায় মোট ভোটার ৬০ লাখ ৯৬ হাজার। আর ভোট কেন্দ্র থাকবে ২ হাজার ৩শ ৭৪টি। ভোটাররা প্রতিটি উপজেলায় একজন করে চেয়ারম্যান, একজন মহিলাসহ দু’জন ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত করবেন।