রাজশাহী , বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
নোটিশ :
পবিত্র ইদুল আযহা উপলক্ষে আগামী ১৬ জুন ২০২৪ থেকে ২১ জুন ২০২৪ তারিখ পর্যন্ত বাংলার জনপদের সকল কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। ২২ জুন ২০২৪ তারিখ থেকে পুনরায় সকল কার্যক্রম চালু থাকবে। ***ধন্যবাদ**

মেয়র লিটন দায়িত্ব গ্রহণের পর রাজশাহীতে বিনিয়োগের আগ্রহ বাড়ছে বিদেশীদের

  • আপডেটের সময় : ০৩:০২:৪৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৫ জানুয়ারী ২০১৯
  • ৯৯ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

রাজশাহী প্রতিনিধি: রাজশাহী সিটি কপোরেশন মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ক্ষমতা গ্রহণের মাত্র সাড়ে তিন মাসের মাথায় রাজশাহীতে বিনিয়োগের আগ্রহ দেখাতে শুরু করেছে বিদেশী রাষ্ট্রগুলো। এরইমধ্য চীনসহ বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিরা মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের সঙ্গে দেখা করেছেন জানিয়েছেন রাজশাহী নিয়ে তাদের বিনিয়োগের মহাপরিকল্পনা।

অর্থনীতি বিশ্লেষকরা রাজশাহীতে বিদেশীদের বিনিয়োগের আগ্রহকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন। তাঁদের মতে, যেকোনো দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে বৈদেশিক বিনিয়োগ একটি অন্যতম সহায়ক হিসেবে বিবেচিত। কারণ বিনিয়োগ বৃদ্ধি পেলে একদিকে যেমন কর্মসংস্থান এর সৃষ্টি হয় অন্যদিকে উত্পাদিত পণ্য বা সেবা অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে সহায়তা করে থাকে।

জানা গেছে, রাজশাহীতে চীনা তিনটি প্রতিষ্ঠান কাজ করছে। তারা রাজশাহীতে আরো বেশি পরিমাণে যেসব সেক্টরে বিনিয়োগে আগ্রহ দেখাচ্ছে তার মধ্যে রয়েছে, চীন কৃষি ও শিল্পখাতে সহযোগিতা, নগরীর ট্রান্সপোটেন্ট সিস্টেম উন্নয়ন, রাজশাহী মহানগরীর প্রবেশ দ্বারসমূহ চাইনা-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ গেট স্থাপনের বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেন।

এর আগে গত ১৯ অক্টোবর চীন হুনান প্রদেশের গর্ভনর মি. সু দাজে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের উন্নয়নে সকল ধরনের সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস দিয়েছেন। একইসঙ্গে রাজশাহীতে চীন-বাংলাদেশ মৈত্রী সেতুর ন্যায় ফ্লাইওভার নির্মাণের আগ্রহ প্রকাশ করেন।

অন্যদিকে, রাজশাহীতে ব্যবসায়, শিক্ষা ও নারী উদ্যোক্তাদের উৎসাহিত করতে রাজশাহীতে বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত কানাডার হাই কমিশনার বেনওয়া প্রিফোনটাইন। এ সময় তিনি রাজশাহীর রাজশাহী মহানগরীর রাস্তাঘাট পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম সবুজের কাজ দেখে মেয়র লিটনের প্রশংসা করেন। এছাড়াও অনেক প্রতিবেশী দেশগুলো রাজশাহীতে ব্যবসা বাণিজ্য সম্প্রসারণ ও বিনিয়োগে আগ্রহ দেখাচ্ছে বলে রাসিকের বিভন্ন সুত্র থেকে জানা গেছে ।

Trulli

এ বিষয়ে রাসিক মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, রাজশাহী কৃষিপ্রধান অঞ্চল। এ অঞ্চলে বিপুল পরিমাণ কৃষিপণ্য ও ফল উৎপাদন হয়। সেজন্য কৃষিখাতসহ, গার্মেন্টস ও শিল্পায়নে বিদেশী বন্ধুদের বিনিয়োগের অনুরোধ করছি। মেয়র আরো বলেন, বিনিয়োগ বৃদ্ধি পেলে একদিকে যেমন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। অন্যদিকে উত্পাদিত পণ্য বা সেবা অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে সহায়তা করবে।

Adds Banner_2024

মেয়র লিটন দায়িত্ব গ্রহণের পর রাজশাহীতে বিনিয়োগের আগ্রহ বাড়ছে বিদেশীদের

আপডেটের সময় : ০৩:০২:৪৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৫ জানুয়ারী ২০১৯

রাজশাহী প্রতিনিধি: রাজশাহী সিটি কপোরেশন মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ক্ষমতা গ্রহণের মাত্র সাড়ে তিন মাসের মাথায় রাজশাহীতে বিনিয়োগের আগ্রহ দেখাতে শুরু করেছে বিদেশী রাষ্ট্রগুলো। এরইমধ্য চীনসহ বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিরা মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের সঙ্গে দেখা করেছেন জানিয়েছেন রাজশাহী নিয়ে তাদের বিনিয়োগের মহাপরিকল্পনা।

অর্থনীতি বিশ্লেষকরা রাজশাহীতে বিদেশীদের বিনিয়োগের আগ্রহকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন। তাঁদের মতে, যেকোনো দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে বৈদেশিক বিনিয়োগ একটি অন্যতম সহায়ক হিসেবে বিবেচিত। কারণ বিনিয়োগ বৃদ্ধি পেলে একদিকে যেমন কর্মসংস্থান এর সৃষ্টি হয় অন্যদিকে উত্পাদিত পণ্য বা সেবা অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে সহায়তা করে থাকে।

জানা গেছে, রাজশাহীতে চীনা তিনটি প্রতিষ্ঠান কাজ করছে। তারা রাজশাহীতে আরো বেশি পরিমাণে যেসব সেক্টরে বিনিয়োগে আগ্রহ দেখাচ্ছে তার মধ্যে রয়েছে, চীন কৃষি ও শিল্পখাতে সহযোগিতা, নগরীর ট্রান্সপোটেন্ট সিস্টেম উন্নয়ন, রাজশাহী মহানগরীর প্রবেশ দ্বারসমূহ চাইনা-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ গেট স্থাপনের বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেন।

এর আগে গত ১৯ অক্টোবর চীন হুনান প্রদেশের গর্ভনর মি. সু দাজে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের উন্নয়নে সকল ধরনের সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস দিয়েছেন। একইসঙ্গে রাজশাহীতে চীন-বাংলাদেশ মৈত্রী সেতুর ন্যায় ফ্লাইওভার নির্মাণের আগ্রহ প্রকাশ করেন।

অন্যদিকে, রাজশাহীতে ব্যবসায়, শিক্ষা ও নারী উদ্যোক্তাদের উৎসাহিত করতে রাজশাহীতে বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত কানাডার হাই কমিশনার বেনওয়া প্রিফোনটাইন। এ সময় তিনি রাজশাহীর রাজশাহী মহানগরীর রাস্তাঘাট পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম সবুজের কাজ দেখে মেয়র লিটনের প্রশংসা করেন। এছাড়াও অনেক প্রতিবেশী দেশগুলো রাজশাহীতে ব্যবসা বাণিজ্য সম্প্রসারণ ও বিনিয়োগে আগ্রহ দেখাচ্ছে বলে রাসিকের বিভন্ন সুত্র থেকে জানা গেছে ।

Trulli

এ বিষয়ে রাসিক মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, রাজশাহী কৃষিপ্রধান অঞ্চল। এ অঞ্চলে বিপুল পরিমাণ কৃষিপণ্য ও ফল উৎপাদন হয়। সেজন্য কৃষিখাতসহ, গার্মেন্টস ও শিল্পায়নে বিদেশী বন্ধুদের বিনিয়োগের অনুরোধ করছি। মেয়র আরো বলেন, বিনিয়োগ বৃদ্ধি পেলে একদিকে যেমন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। অন্যদিকে উত্পাদিত পণ্য বা সেবা অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে সহায়তা করবে।