রাজশাহী , মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
তিস্তা মহাপরিকল্পনায় চীন-ভারতের ভারসাম্য কীভাবে? বাংলাদেশের সঙ্গে তিস্তার পানি বণ্টন সম্ভব নয় : মমতা মারা গেছেন ‘জল্লাদ’ শাহজাহান ‘প্রযুক্তিজ্ঞান ছাড়া দেশ বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে পারে না’ দুদকে হা‌জির হন‌নি বেনজীর, আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা রাজশাহীতে দেখা মিলল সাত রাসেলস ভাইপারের, পিটিয়ে মারলো এলাকাবাসী নগর যুবলীগের পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন শফিকুজ্জামান শফিক আওয়ামী লীগ জনগণের শক্তিতে বিশ্বাস করে : প্রধানমন্ত্রী বন্যায় স্থগিত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন পরীক্ষা আ’লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী একাদশে ভর্তির প্রথম ধাপের ফল প্রকাশ আজ দীর্ঘদিনের প্রচেষ্টায় বাস্তবায়ন হচ্ছে রাসিক মেয়র লিটনের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি রাজশাহী-কলকাতা ট্রেন চালুর ঘোষণা আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আগামীকাল দিল্লির রাষ্ট্রপতি ভবনে শেখ হাসিনাকে লাল গালিচা সংবর্ধনা রাজশাহী মহানগর যুবলীগের নেতৃত্বে মনি,রনি ও জেলায় সজল,সৈকত নির্বাচিত  প্রধানমন্ত্রীর কণ্ঠ শুনেই ছুটে এলো খরগোশের দল ঈদের দিন বন্ধ থাকবে সব আন্তঃনগর ট্রেন রাসিক মেয়র ও তার পরিবারের সদস্যদের জড়িয়ে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছে উলামা কল্যাণ পরিষদ রাজশাহীতে ঈদের প্রধান জামাত সকাল সাড়ে ৭টায়

শীতের রাতেও বিছানায় ঘুমাতে পারেন না দাউদ নবী

  • আপডেটের সময় : ০৭:০৭:৩২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০১৯
  • ১৩১ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

জনপদ ডেস্ক: কনকনে শীতের রাতেও বিছানায় শুয়ে ঘুমাতে পারেন না দাউদ নবী। বিছানায় পিঠ ঠেকলেই কঁকিয়ে উঠতে হয় তাকে। শেষ কবে বিছানায় পা মেলে ঘুমিয়েছেন মনে নেই!

পাঁচ ভাই ও তিন বোনের মধ্যে সবার ছোট দাউদ। চার বছর বয়সে বাবাকে হারিয়েছেন। সপ্তম শ্রেণিতে পড়ার সময় আক্রান্ত হন বাতজ্বরে। এরপরও এসএসসিতে জিপিএ-৫ পান তিনি। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার সময় অসুখ আরো বেড়ে যায়। শুয়ে শুয়ে পরীক্ষা দিয়ে অল্পের জন্য জিপিএ-৫ পাননি তিনি। তবে ভর্তি পরীক্ষায় কৃতিত্ব দেখিয়ে ভর্তি হন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স বিভাগে। বছর বছর বাড়তে থাকে তার অসুস্থতা। স্নাতক তৃতীয় বর্ষের সময় থেকে কুঁজো হয়ে যেতে থাকেন তিনি। এ অবস্থায় স্নাতক পরীক্ষায় ষষ্ঠ স্থান অধিকার করে এখন মাস্টার্সে পড়ছেন দাউদ।

Trulli

সপ্তম শ্রেণি থেকে বাতজ্বরকে সঙ্গী করে এতোদূর এগিয়েছেন। ছোটবেলায় দারিদ্রের কাছে হার না মানলেও পড়াশোনার শেষ প্রান্তে এসে বাতজ্বরের কাছে হার মেনে থমকে যেতে বসেছে দাউদের জীবন। চিকিৎসকের বরাত দিয়ে দাউদের মা মরিয়ম বেগম বলেন, ‘দ্রুত চিকিৎসা না হলে দাউদের মেরুদণ্ড যে কোনো মুহূর্তে ভেঙ্গে পড়তে পারে। যে কোনো সময়ই ঘাড় থেকে মাথা ছিঁড়ে যেতে পারে তার।’

ছয় মাস আগে ভারতের চেন্নাইয়ের অ্যাপোলো হাসপাতাল নেওয়া হয়েছিল দাউদকে। চিকিৎসকরা দ্রুত সার্জারির পরামর্শ দিয়েছেন। সব মিলিয়ে তার চিকিৎসা ব্যয় কমপক্ষে ২০ লাখ টাকা। আগামী ৩ ফেব্রুয়ারি দাউদকে পুনরায় চেন্নাইয়ে নেওয়ার কথা রয়েছে। দাউদের জন্য সাহায্য পাঠানো যাবে-

মো. দাউদ নবী, সঞ্চয়ী হিসাব নং : ১৩৩১৫১০০৭৯৪৭৫, ডিবিবিএল, মুরাদপুর শাখা, চট্টগ্রাম।
এবং মো. দাউদ নবী, সঞ্চয়ী হিসাব নং :০২৬১২১০০১৬৭৮০৮, এক্সিম ব্যাংক সিডিএ এভিনিউ শাখা, চট্টগ্রাম

দাউদের সাথে যোগাযোগ ০১৬৪০৮৩৫৮৩৬, ০১৮৩৭৬৮৫৫৬৩

Adds Banner_2024

শীতের রাতেও বিছানায় ঘুমাতে পারেন না দাউদ নবী

আপডেটের সময় : ০৭:০৭:৩২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০১৯

জনপদ ডেস্ক: কনকনে শীতের রাতেও বিছানায় শুয়ে ঘুমাতে পারেন না দাউদ নবী। বিছানায় পিঠ ঠেকলেই কঁকিয়ে উঠতে হয় তাকে। শেষ কবে বিছানায় পা মেলে ঘুমিয়েছেন মনে নেই!

পাঁচ ভাই ও তিন বোনের মধ্যে সবার ছোট দাউদ। চার বছর বয়সে বাবাকে হারিয়েছেন। সপ্তম শ্রেণিতে পড়ার সময় আক্রান্ত হন বাতজ্বরে। এরপরও এসএসসিতে জিপিএ-৫ পান তিনি। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার সময় অসুখ আরো বেড়ে যায়। শুয়ে শুয়ে পরীক্ষা দিয়ে অল্পের জন্য জিপিএ-৫ পাননি তিনি। তবে ভর্তি পরীক্ষায় কৃতিত্ব দেখিয়ে ভর্তি হন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স বিভাগে। বছর বছর বাড়তে থাকে তার অসুস্থতা। স্নাতক তৃতীয় বর্ষের সময় থেকে কুঁজো হয়ে যেতে থাকেন তিনি। এ অবস্থায় স্নাতক পরীক্ষায় ষষ্ঠ স্থান অধিকার করে এখন মাস্টার্সে পড়ছেন দাউদ।

Trulli

সপ্তম শ্রেণি থেকে বাতজ্বরকে সঙ্গী করে এতোদূর এগিয়েছেন। ছোটবেলায় দারিদ্রের কাছে হার না মানলেও পড়াশোনার শেষ প্রান্তে এসে বাতজ্বরের কাছে হার মেনে থমকে যেতে বসেছে দাউদের জীবন। চিকিৎসকের বরাত দিয়ে দাউদের মা মরিয়ম বেগম বলেন, ‘দ্রুত চিকিৎসা না হলে দাউদের মেরুদণ্ড যে কোনো মুহূর্তে ভেঙ্গে পড়তে পারে। যে কোনো সময়ই ঘাড় থেকে মাথা ছিঁড়ে যেতে পারে তার।’

ছয় মাস আগে ভারতের চেন্নাইয়ের অ্যাপোলো হাসপাতাল নেওয়া হয়েছিল দাউদকে। চিকিৎসকরা দ্রুত সার্জারির পরামর্শ দিয়েছেন। সব মিলিয়ে তার চিকিৎসা ব্যয় কমপক্ষে ২০ লাখ টাকা। আগামী ৩ ফেব্রুয়ারি দাউদকে পুনরায় চেন্নাইয়ে নেওয়ার কথা রয়েছে। দাউদের জন্য সাহায্য পাঠানো যাবে-

মো. দাউদ নবী, সঞ্চয়ী হিসাব নং : ১৩৩১৫১০০৭৯৪৭৫, ডিবিবিএল, মুরাদপুর শাখা, চট্টগ্রাম।
এবং মো. দাউদ নবী, সঞ্চয়ী হিসাব নং :০২৬১২১০০১৬৭৮০৮, এক্সিম ব্যাংক সিডিএ এভিনিউ শাখা, চট্টগ্রাম

দাউদের সাথে যোগাযোগ ০১৬৪০৮৩৫৮৩৬, ০১৮৩৭৬৮৫৫৬৩