রাজশাহী , বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
দাবি না মানায় রাবি উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করে রেখেছেন শিক্ষার্থীরা ছাত্রশিবির-ছাত্রদল এবং বহিরাগতরা ঢাবির হলে তাণ্ডব চালিয়েছে: মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী হল ছাড়বেন না রাবি শিক্ষার্থীরা, তিন দাবিতে বিক্ষোভ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা ঢাবির সব হল সাধারণ শিক্ষার্থীদের দখলে এবার সিটি কর্পোরেশন এলাকায় প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা হামলার ভয়ে হল ছাড়ছেন রাবি শিক্ষার্থীরা কোটা সংস্কার আন্দোলন: বৃহস্পতিবারের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা রাবির বঙ্গবন্ধু হলে অগ্নিসংযোগ, শহরে খণ্ড খণ্ড বিক্ষোভ লাঠিসোঁটা নিয়ে রাবিতে বিক্ষোভ, বঙ্গবন্ধু হলে ভাঙচুর, বাইকে আগুন রাজশাহীতে ৪ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন রাবিতে হলে ঢুকে মোটরসাইকেলে আগুন, ব্যাপক ভাঙচুর চট্টগ্রামে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ ঢাকা, চট্টগ্রাম, বগুড়া ও রাজশাহীতে বিজিবি মোতায়েন যুক্তরাষ্ট্রের বক্তব্যের প্রতিবাদ জানাল বাংলাদেশ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দিতে হবে : প্রধানমন্ত্রী কোটা আন্দোলনকারীদের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা এবার ঢামেকে আহত আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা হলে ফেরার অনুরোধ প্রত্যাখ্যান আন্দোলনকারীদের

শিক্ষক হাসনা হেনার মুক্তির দাবিতে অনশন

  • আপডেটের সময় : ০৫:১৬:৪২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৯ ডিসেম্বর ২০১৮
  • ৬৭ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

ঢাকা প্রতিনিধি: শিক্ষার্থী অরিত্রী অধিকারীকে আত্মহত্যায় প্ররোচণা দেওয়ার মামলায় গ্রেফতার শিক্ষক হাসনা হেনার মুক্তির দাবিতে অনশন চালিয়ে যাচ্ছেন ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের একদল শিক্ষার্থী। একইসঙ্গে ক্লাস বর্জন করেছেন তারা। তবে পূর্ব নির্ধারিত সব ধরনের পরীক্ষা যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

রোববার (৯ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে রাজধানীর বেইলি রোডে ভিকারুননিসার সামনে পোস্টার-প্ল্যাকার্ড নিয়ে বিক্ষোভ ও অনশন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা।

Trulli

অনশন পালন করা একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী ফারিয়া বলেন, শিক্ষক হলো মায়ের মতো। তিনি বকা দেবেন, আবার আদরও দেবেন। আজ আমাদের সেই মা কারাগারে আছেন। মাকে কারাগারে রেখে আমরা বাইরে বসে থাকতে পারি না। তার মুক্তি দেওয়া না হলে আমরা অনশন চালিয়ে যাব।

সালেহা বেগম নামে এক অভিভাবক বলেন, দোষীদের বিচার অবশ্যই চাই। তাই বলে নির্দোষ কোনো ব্যক্তি ষড়যন্ত্রের শিকার হতে পারেন না। আমরাও শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আছি। তাদের আন্দোলন যৌক্তিক।

হাসনা হেনা আপার মুক্তি চাই, জাতির কারিগর কেন কারাগারে, হাসনা হেনার মুক্তি না দেওয়া পর্যন্ত অনশন অব্যাহত, লিখতে শিখিয়েছে যে হাত, সে কেন খাবে জেলের ভাত’ ইত্যাদি লেখা সম্বলিত প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করছেন।

শিক্ষক হাসনা হেনার মুক্তির দাবিতে গত বুধবার (৫ ডিসেম্বর) গ্রেফতার করা হয়েছে শ্রেণিশিক্ষক হাসনা হেনাকে। তার মুক্তির দাবিতে বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) থেকে বিক্ষোভ শুরু করেন ভিকারুননিসা স্কুল অ্যান্ড কলেজের বর্তমান ও প্রাক্তন ছাত্রীর ব্যানারে আরেকদল শিক্ষার্থী। শিক্ষক হাসনা হেনা এখন কারাগারে রয়েছেন।

ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজে বর্তমানে একাদশ শ্রেণির ক্লাস চলছে। অন্য শ্রেণিগুলোতে বার্ষিক পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে।

Adds Banner_2024
Adds Banner_2024

দাবি না মানায় রাবি উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করে রেখেছেন শিক্ষার্থীরা

Adds Banner_2024

শিক্ষক হাসনা হেনার মুক্তির দাবিতে অনশন

আপডেটের সময় : ০৫:১৬:৪২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৯ ডিসেম্বর ২০১৮

ঢাকা প্রতিনিধি: শিক্ষার্থী অরিত্রী অধিকারীকে আত্মহত্যায় প্ররোচণা দেওয়ার মামলায় গ্রেফতার শিক্ষক হাসনা হেনার মুক্তির দাবিতে অনশন চালিয়ে যাচ্ছেন ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের একদল শিক্ষার্থী। একইসঙ্গে ক্লাস বর্জন করেছেন তারা। তবে পূর্ব নির্ধারিত সব ধরনের পরীক্ষা যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

রোববার (৯ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে রাজধানীর বেইলি রোডে ভিকারুননিসার সামনে পোস্টার-প্ল্যাকার্ড নিয়ে বিক্ষোভ ও অনশন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা।

Trulli

অনশন পালন করা একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী ফারিয়া বলেন, শিক্ষক হলো মায়ের মতো। তিনি বকা দেবেন, আবার আদরও দেবেন। আজ আমাদের সেই মা কারাগারে আছেন। মাকে কারাগারে রেখে আমরা বাইরে বসে থাকতে পারি না। তার মুক্তি দেওয়া না হলে আমরা অনশন চালিয়ে যাব।

সালেহা বেগম নামে এক অভিভাবক বলেন, দোষীদের বিচার অবশ্যই চাই। তাই বলে নির্দোষ কোনো ব্যক্তি ষড়যন্ত্রের শিকার হতে পারেন না। আমরাও শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আছি। তাদের আন্দোলন যৌক্তিক।

হাসনা হেনা আপার মুক্তি চাই, জাতির কারিগর কেন কারাগারে, হাসনা হেনার মুক্তি না দেওয়া পর্যন্ত অনশন অব্যাহত, লিখতে শিখিয়েছে যে হাত, সে কেন খাবে জেলের ভাত’ ইত্যাদি লেখা সম্বলিত প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করছেন।

শিক্ষক হাসনা হেনার মুক্তির দাবিতে গত বুধবার (৫ ডিসেম্বর) গ্রেফতার করা হয়েছে শ্রেণিশিক্ষক হাসনা হেনাকে। তার মুক্তির দাবিতে বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) থেকে বিক্ষোভ শুরু করেন ভিকারুননিসা স্কুল অ্যান্ড কলেজের বর্তমান ও প্রাক্তন ছাত্রীর ব্যানারে আরেকদল শিক্ষার্থী। শিক্ষক হাসনা হেনা এখন কারাগারে রয়েছেন।

ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজে বর্তমানে একাদশ শ্রেণির ক্লাস চলছে। অন্য শ্রেণিগুলোতে বার্ষিক পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে।