রাজশাহী , রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
রাজাকারের নাতিরা সব পাবে, মুক্তিযোদ্ধার নাতিপুতিরা কিছুই পাবে না? আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে দাঁড়ানোর অধিকার আমার নেই ফের ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম, দৃশ্যমান পদক্ষেপ চান কোটা আন্দোলনকারীরা আবাসন এবং হসপিটালিটি খাতে বিনিয়োগে আগ্রহী চীন : প্রধানমন্ত্রী ব্যারিকেড ভেঙে ফেলেছেন শিক্ষার্থীরা, যাচ্ছেন বঙ্গভবনের দিকে ট্রাম্পের ওপর হামলা নির্বাচনী প্রচারণায় কতটা প্রভাব ফেলবে? পূর্বঘোষিত গণপদযাত্রায় অংশ নিতে জড়ো হচ্ছেন শিক্ষার্থীরা ৭ অঞ্চলে সন্ধ্যার মধ্যে ঝড়ের আভাস কানে গুলিবিদ্ধ ট্রাম্প, বলছেন– যুক্তরাষ্ট্রে এমন হামলা অবিশ্বাস্য মামলা তুলে নিতে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম কোটা আন্দোলনকারীদের কোটা আন্দোলন : গণপদযাত্রা ও রাষ্ট্রপতিকে স্মারকলিপি দেবেন শিক্ষার্থীরা ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে সরকার : প্রধানমন্ত্রী পেনশন স্কিম নিয়ে ভুল বোঝাবুঝি দূর হয়েছে : ওবায়দুল কাদের ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকরা সরকার চাইলে কোটা পরিবর্তন করতে পারবে, হাইকোর্টের রায় প্রকাশ ব্যারিকেড ভেঙে ‘ভুয়া ভুয়া’ স্লোগান, উত্তাল শাহবাগ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ আন্দোলনকে বেগবান করতে জনসংযোগ, সমন্বয় করে কর্মসূচির ঘোষণা আজ চলমান কোটা আন্দোলন নিয়ে ছাত্রলীগের সংবাদ সম্মেলন কোটা আন্দোলনকারীদের জন্য আদালতের দরজা সবসময় খোলা

মন্ত্রিসভা থেকে অনানুষ্ঠানিকভাবে বিদায় নিলেন প্রধানমন্ত্রী

  • আপডেটের সময় : ০১:৪৩:৪৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩ ডিসেম্বর ২০১৮
  • ১০০ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

ঢাকা প্রতিনিধি: মন্ত্রিসভা থেকে অনানুষ্ঠানিকভাবে বিদায় নিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৈঠকে উপস্থিত সবার উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আমাদের বর্তমান সরকারের আমলে আর মন্ত্রিসভার বৈঠক হবে না।’ সরকার পরিচালনায় সর্বাত্মক সহযোগিতা করায় মন্ত্রিপরিষদের সব সদস্যকে ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সবাই ভালো থাকবেন।

সোমবার (৩ ডিসেম্বর) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সরকারের নিয়মিত মন্ত্রিসভা বৈঠকে সব সদস্যের উদ্দেশে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আজকের পর আপনারা সবাই নিজ নিজ এলাকায় যাবেন। নির্বাচনি কাজে অংশ নেবেন। জনগণের সঙ্গে কথা বলবেন। জনগণের জন্য সরকারের সমস্ত উন্নয়ন কর্মসূচি সম্পর্কে তাদের অবহিত করবেন।’

Trulli

মন্ত্রিসভা বৈঠকে অংশ নেওয়া একাধিক মন্ত্রীর সঙ্গে পৃথক পৃথকভাবে কথা বলে এসব কথা জানা গেছে।
শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকারের মন্ত্রিসভার শেষ বৈঠক ছিল আজ সোমবার। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এটি ছিল বর্তমান বছরের ৩৫তম বৈঠক। একইসঙ্গে মহাজোট সরকারের ২০২তম মন্ত্রিসভার বৈঠক ছিল এটি।

সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘আজ আমাদের মন্ত্রিসভার শেষ বৈঠক। এরপর মন্ত্রিসভার আর কোনও বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে না। সবাই নিজ নিজ এলাকায় চলে যাবেন নির্বাচনি কাজে। আর হয়তো দেখাও হবে না।’

তিনি বলেন, ‘আগামী নির্বাচনে জনগণ কাকে ভোট দেবে এটা তারাই জানেন। পরবর্তীতে নতুন সংসদ হবে, নতুন কেবিনেট হবে, সেখানে কারা আসবে সেটা তো এখনই বলা যায় না, সবাই ভালো থাকবেন। সবাইকে ধন্যবাদ।’

প্রসঙ্গত, আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট নেওয়া হবে। এরই মধ্যে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের কাজও শেষ হয়েছে। ৯ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন।

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর ১২ জানুয়ারি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গঠিত হয়। বর্তমান সরকারে আওয়ামী লীগ ছাড়াও মহাজোটের শরিক জাতীয় পার্টির (এরশাদ) তিনজন, জাতীয় পার্টির (জেপি) একজন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) একজন এবং ওয়ার্কার্স পার্টির একজন মন্ত্রিসভায় রয়েছেন।

Adds Banner_2024
জনপ্রিয় পোস্ট
Adds Banner_2024

বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ নেতার মায়ের মৃত্যুতে শোক

Adds Banner_2024

মন্ত্রিসভা থেকে অনানুষ্ঠানিকভাবে বিদায় নিলেন প্রধানমন্ত্রী

আপডেটের সময় : ০১:৪৩:৪৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩ ডিসেম্বর ২০১৮

ঢাকা প্রতিনিধি: মন্ত্রিসভা থেকে অনানুষ্ঠানিকভাবে বিদায় নিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৈঠকে উপস্থিত সবার উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আমাদের বর্তমান সরকারের আমলে আর মন্ত্রিসভার বৈঠক হবে না।’ সরকার পরিচালনায় সর্বাত্মক সহযোগিতা করায় মন্ত্রিপরিষদের সব সদস্যকে ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সবাই ভালো থাকবেন।

সোমবার (৩ ডিসেম্বর) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সরকারের নিয়মিত মন্ত্রিসভা বৈঠকে সব সদস্যের উদ্দেশে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আজকের পর আপনারা সবাই নিজ নিজ এলাকায় যাবেন। নির্বাচনি কাজে অংশ নেবেন। জনগণের সঙ্গে কথা বলবেন। জনগণের জন্য সরকারের সমস্ত উন্নয়ন কর্মসূচি সম্পর্কে তাদের অবহিত করবেন।’

Trulli

মন্ত্রিসভা বৈঠকে অংশ নেওয়া একাধিক মন্ত্রীর সঙ্গে পৃথক পৃথকভাবে কথা বলে এসব কথা জানা গেছে।
শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকারের মন্ত্রিসভার শেষ বৈঠক ছিল আজ সোমবার। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এটি ছিল বর্তমান বছরের ৩৫তম বৈঠক। একইসঙ্গে মহাজোট সরকারের ২০২তম মন্ত্রিসভার বৈঠক ছিল এটি।

সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘আজ আমাদের মন্ত্রিসভার শেষ বৈঠক। এরপর মন্ত্রিসভার আর কোনও বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে না। সবাই নিজ নিজ এলাকায় চলে যাবেন নির্বাচনি কাজে। আর হয়তো দেখাও হবে না।’

তিনি বলেন, ‘আগামী নির্বাচনে জনগণ কাকে ভোট দেবে এটা তারাই জানেন। পরবর্তীতে নতুন সংসদ হবে, নতুন কেবিনেট হবে, সেখানে কারা আসবে সেটা তো এখনই বলা যায় না, সবাই ভালো থাকবেন। সবাইকে ধন্যবাদ।’

প্রসঙ্গত, আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট নেওয়া হবে। এরই মধ্যে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের কাজও শেষ হয়েছে। ৯ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন।

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর ১২ জানুয়ারি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গঠিত হয়। বর্তমান সরকারে আওয়ামী লীগ ছাড়াও মহাজোটের শরিক জাতীয় পার্টির (এরশাদ) তিনজন, জাতীয় পার্টির (জেপি) একজন, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) একজন এবং ওয়ার্কার্স পার্টির একজন মন্ত্রিসভায় রয়েছেন।