রাজশাহী , বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
হামলার ভয়ে হল ছাড়ছেন রাবি শিক্ষার্থীরা কোটা সংস্কার আন্দোলন: বৃহস্পতিবারের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা রাবির বঙ্গবন্ধু হলে অগ্নিসংযোগ, শহরে খণ্ড খণ্ড বিক্ষোভ লাঠিসোঁটা নিয়ে রাবিতে বিক্ষোভ, বঙ্গবন্ধু হলে ভাঙচুর, বাইকে আগুন রাজশাহীতে ৪ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন রাবিতে হলে ঢুকে মোটরসাইকেলে আগুন, ব্যাপক ভাঙচুর চট্টগ্রামে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ ঢাকা, চট্টগ্রাম, বগুড়া ও রাজশাহীতে বিজিবি মোতায়েন যুক্তরাষ্ট্রের বক্তব্যের প্রতিবাদ জানাল বাংলাদেশ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দিতে হবে : প্রধানমন্ত্রী কোটা আন্দোলনকারীদের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা এবার ঢামেকে আহত আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা হলে ফেরার অনুরোধ প্রত্যাখ্যান আন্দোলনকারীদের হামলা-সংঘর্ষের পর ঢাবি ক্যাম্পাসে ‘অ্যাকশনে’ যাবে পুলিশ শহীদুল্লাহ হলের সামনে ফের সংঘর্ষ, ৪ ককটেল বিস্ফোরণ চট্টগ্রামে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ ঢাবিতে কোটা আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা, আহত অন্তত ৮০ ঢাবিতে আন্দোলনকারী-ছাত্রলীগ মুখোমুখি, ইট-পাটকেল নিক্ষেপ রাজাকারের নাতিরা সব পাবে, মুক্তিযোদ্ধার নাতিপুতিরা কিছুই পাবে না?

চুলের গোড়ায় ঘাম জমে, সমস্যার সমাধান …

  • আপডেটের সময় : ০৫:২৪:০১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৯
  • ৬১ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

লাইফস্টাইল ডেস্কঃ ‘চুল তার কবেকার অন্ধকার বিদিশার নিশা—’ কবি জীবনানন্দ দাশের কবিতার এই লাইন কত প্রেমপত্রেরই সাক্ষী থেকেছে। সেই পত্রজুড়ে প্রেমিকার একঢাল কালো চুল নিয়ে কত কল্পনাই না আঁকিবুকি কেটেছে! কিন্তু বাস্তব কি এতটাই পেলব?

একদমই নয়। গরম পড়তেই তাই বাড়ি থেকে দু’কদম বেরলেই উড়ন্ত ঢেউ খেলানো চুল ঘেমে নেয়ে চপচপে। কায়দা করে আবার ফ্রিঞ্জ কাটা থাকলে তো কপালের সঙ্গে তারা আষ্ঠেপৃষ্ঠে জড়িয়ে থাকে। সুতরাং সাজ-সৌন্দর্য সব কিছুকে বিদায় জানানো ছাড়া উপায় থাকে না।

Trulli

কিন্তু তা বলে কি গ্রীষ্মের বিকেলে কোনও কফিশপে হোক বা শপিং মলে, আপনি নজর কাড়বেন না! সুন্দর সাজ-পোশাক সমস্তই মাটি করবেন ঘামে ভেজা চুলের জন্য! তা একেবারেই হতে দেওয়া যায় না। তাই দেখে নিন গরমে স্ক্যাল্পকে কী ভাবে শুকনো রাখবেন, যাতে চুলও ঘোর গরমে আয়ত্তে থাকবে নিজের। চুলের যত্নের সে সব নিয়মকানুন জানেন?

সপ্তাহে ২-৩ দিন গোলাপ জল দিয়ে মাথা ধুয়ে নিন। গোলাপ জল ঘাম নিয়ন্ত্রণ করে। স্ক্যাল্প ঘেমে গিয়ে অনেক সময়ে দুর্গন্ধ বেরয়। এ ক্ষেত্রে অবশ্যই গোলাপ জল সেই দুর্গন্ধ আটকাতে সক্ষম। ঠান্ডা গোলাপ জল ব্যবহার করলে আরও ভাল ফল পাবেন।
গরমে হেয়ার স্ট্রেটনার, হিট ড্রায়ার, ইত্যাদি স্টাইলিং মেশিন কম ব্যবহার করুন। এই মেশিনগুলি ব্যবহার করলে স্ক্যাল্প অয়েলি হয়ে পড়ে। এই ধরনের স্টাইলিং মেশিন ব্যবহারে রোমকূপে খুশকির সমস্যাও হয়।
এসেনশিয়াল অয়েল ব্যবহার করুন। স্ক্যাল্পকে সুস্থ-সতেজ রাখতে সাহায্য করে এসেনশিয়াল অয়েল। যে কোনও সাধারণ তেলের সঙ্গে ২-৩ ফোঁটা এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে স্ক্যাল্পে মালিশ করে তার পরে ধুয়ে নিন। এতে ঘাম কম হবে।

খুব অয়েলি স্ক্যাল্প হলে একদিন অন্তর শ্যাম্পু করুন।

হেয়ার মাস্ক ব্যবহার করুন। বাড়িতে নিজে হেয়ার মাস্ক তৈরি করে ব্যবহার করুন। এতে চুল সুস্থ ও পরিষ্কার থাকবে। চুলের গোড়া পরিষ্কার থাকলে ঘামের সমস্যাও কম হবে।
শ্যাম্পু করার আগে চুলের গোড়ায় ভিনিগার লাগিয়ে নিন। ভিনিগার মরা কোষগুলিকে দূর করে ফলে স্ক্যাল্পে ঘাম বসতে পারে না।
পিপারমিন্ট অয়েলও শ্যাম্পু করার আগে ব্যবহার করতে পারেন। চুলকে সুস্থ ও সতেজ রাখে এবং গোড়াতে ঘাম বসে না।
বেশি ক্ষণ ধরে শ্যাম্পু করবেন না। বেশি বেলায় শ্যাম্পু করবেন না। শ্যাম্পু করে অবশ্যই ভাল করে চুল শোকান। গোড়া ভিজে অবস্থায় বেরবেন না। জলের সঙ্গে ঘাম মিশে চুল আরও ভিজে যাবে।

খুব অয়েলি স্ক্যাল্প হলে একদিন অন্তর শ্যাম্পু করুন। তাড়াহুড়ো থাকলে ড্রাই শ্যাম্পু ব্যবহার করুন। তবে নিয়মিত ড্রাই শ্যাম্পু ব্যবহার করবেন না।
গরমে ঘাম যাদের বেশি হয় তাঁরা মাথার বিভিন্ন অ্যাকসেসরিজ ব্যবহার করতে পারেন। ব্যান্ডানা বা স্কার্ফ ব্যবহার করুন। এতে চুল ঘেমে গেলেও বোঝা যাবে না। খোলা চুলে কাঠফাটা দুপুরে বেরবেন না। গ্রীষ্মের ফ্যাশনে পনিটেল, বান বা বিভিন্ন ধরনের বিনুনি মানানসই।

Adds Banner_2024

চুলের গোড়ায় ঘাম জমে, সমস্যার সমাধান …

আপডেটের সময় : ০৫:২৪:০১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৯

লাইফস্টাইল ডেস্কঃ ‘চুল তার কবেকার অন্ধকার বিদিশার নিশা—’ কবি জীবনানন্দ দাশের কবিতার এই লাইন কত প্রেমপত্রেরই সাক্ষী থেকেছে। সেই পত্রজুড়ে প্রেমিকার একঢাল কালো চুল নিয়ে কত কল্পনাই না আঁকিবুকি কেটেছে! কিন্তু বাস্তব কি এতটাই পেলব?

একদমই নয়। গরম পড়তেই তাই বাড়ি থেকে দু’কদম বেরলেই উড়ন্ত ঢেউ খেলানো চুল ঘেমে নেয়ে চপচপে। কায়দা করে আবার ফ্রিঞ্জ কাটা থাকলে তো কপালের সঙ্গে তারা আষ্ঠেপৃষ্ঠে জড়িয়ে থাকে। সুতরাং সাজ-সৌন্দর্য সব কিছুকে বিদায় জানানো ছাড়া উপায় থাকে না।

Trulli

কিন্তু তা বলে কি গ্রীষ্মের বিকেলে কোনও কফিশপে হোক বা শপিং মলে, আপনি নজর কাড়বেন না! সুন্দর সাজ-পোশাক সমস্তই মাটি করবেন ঘামে ভেজা চুলের জন্য! তা একেবারেই হতে দেওয়া যায় না। তাই দেখে নিন গরমে স্ক্যাল্পকে কী ভাবে শুকনো রাখবেন, যাতে চুলও ঘোর গরমে আয়ত্তে থাকবে নিজের। চুলের যত্নের সে সব নিয়মকানুন জানেন?

সপ্তাহে ২-৩ দিন গোলাপ জল দিয়ে মাথা ধুয়ে নিন। গোলাপ জল ঘাম নিয়ন্ত্রণ করে। স্ক্যাল্প ঘেমে গিয়ে অনেক সময়ে দুর্গন্ধ বেরয়। এ ক্ষেত্রে অবশ্যই গোলাপ জল সেই দুর্গন্ধ আটকাতে সক্ষম। ঠান্ডা গোলাপ জল ব্যবহার করলে আরও ভাল ফল পাবেন।
গরমে হেয়ার স্ট্রেটনার, হিট ড্রায়ার, ইত্যাদি স্টাইলিং মেশিন কম ব্যবহার করুন। এই মেশিনগুলি ব্যবহার করলে স্ক্যাল্প অয়েলি হয়ে পড়ে। এই ধরনের স্টাইলিং মেশিন ব্যবহারে রোমকূপে খুশকির সমস্যাও হয়।
এসেনশিয়াল অয়েল ব্যবহার করুন। স্ক্যাল্পকে সুস্থ-সতেজ রাখতে সাহায্য করে এসেনশিয়াল অয়েল। যে কোনও সাধারণ তেলের সঙ্গে ২-৩ ফোঁটা এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে স্ক্যাল্পে মালিশ করে তার পরে ধুয়ে নিন। এতে ঘাম কম হবে।

খুব অয়েলি স্ক্যাল্প হলে একদিন অন্তর শ্যাম্পু করুন।

হেয়ার মাস্ক ব্যবহার করুন। বাড়িতে নিজে হেয়ার মাস্ক তৈরি করে ব্যবহার করুন। এতে চুল সুস্থ ও পরিষ্কার থাকবে। চুলের গোড়া পরিষ্কার থাকলে ঘামের সমস্যাও কম হবে।
শ্যাম্পু করার আগে চুলের গোড়ায় ভিনিগার লাগিয়ে নিন। ভিনিগার মরা কোষগুলিকে দূর করে ফলে স্ক্যাল্পে ঘাম বসতে পারে না।
পিপারমিন্ট অয়েলও শ্যাম্পু করার আগে ব্যবহার করতে পারেন। চুলকে সুস্থ ও সতেজ রাখে এবং গোড়াতে ঘাম বসে না।
বেশি ক্ষণ ধরে শ্যাম্পু করবেন না। বেশি বেলায় শ্যাম্পু করবেন না। শ্যাম্পু করে অবশ্যই ভাল করে চুল শোকান। গোড়া ভিজে অবস্থায় বেরবেন না। জলের সঙ্গে ঘাম মিশে চুল আরও ভিজে যাবে।

খুব অয়েলি স্ক্যাল্প হলে একদিন অন্তর শ্যাম্পু করুন। তাড়াহুড়ো থাকলে ড্রাই শ্যাম্পু ব্যবহার করুন। তবে নিয়মিত ড্রাই শ্যাম্পু ব্যবহার করবেন না।
গরমে ঘাম যাদের বেশি হয় তাঁরা মাথার বিভিন্ন অ্যাকসেসরিজ ব্যবহার করতে পারেন। ব্যান্ডানা বা স্কার্ফ ব্যবহার করুন। এতে চুল ঘেমে গেলেও বোঝা যাবে না। খোলা চুলে কাঠফাটা দুপুরে বেরবেন না। গ্রীষ্মের ফ্যাশনে পনিটেল, বান বা বিভিন্ন ধরনের বিনুনি মানানসই।