রাজশাহী , বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
কোটা নিয়ে আপিল শুনানি রোববার এবার বিটিভির মূল ভবনে আগুন ২১, ২৩ ও ২৫ জুলাইয়ের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত অবশেষে আটকে পড়া ৬০ পুলিশকে উদ্ধার করল র‍্যাবের হেলিকপ্টার উত্তরা-আজমপুরে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত ৪ রামপুরা-বাড্ডায় ব্যাপক সংঘর্ষ, শিক্ষার্থী-পুলিশসহ আহত দুই শতাধিক আওয়ামী লীগের শক্ত অবস্থানে রাজশাহীতে দাঁড়াতেই পারেনি কোটা আন্দোলনকারীরা সরকার কোটা সংস্কারের পক্ষে, চাইলে আজই আলোচনা তারা যখনই বসবে আমরা রাজি আছি : আইনমন্ত্রী আন্দোলন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে কথা বলবেন আইনমন্ত্রী রাজশাহীতে শিক্ষার্থীদের সাথে সংঘর্ষ, পুলিশের গাড়ি ভাংচুর, আহত ২০ রাজশাহীতে ককটেল বিস্ফোরণে ছাত্রলীগ নেতা সবুজ আহত বাড্ডায় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া আজ সারা দেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ কর্মসূচি ঢাকাসহ সারা দেশে ২২৯ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন আগামীকাল সারাদেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঘোষণা আন্দোলনকারীদের প্রাণহানির প্রতিটি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত হবে : প্রধানমন্ত্রী হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা নেওয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী অহেতুক কতগুলো মূল্যবান জীবন ঝরে গেল : প্রধানমন্ত্রী আন্দোলনকারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশ সহযোগিতা করেছে: প্রধানমন্ত্রী

রুয়েটে বেতন বৈষম্যের প্রতিবাদে কর্মবিরতিতে শিক্ষকরা

  • আপডেটের সময় : ০১:১১:৩৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০১৯
  • ৮০ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

রাজশাহী প্রতিনিধি: বেতন বৈষম্য দূরীকরণসহ কয়েকটি দাবিতে কর্মবিরতি পালন করেছেন রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) শিক্ষকবৃন্দ। মঙ্গলবার সকাল ১০টা ৫০ মিনিট থেকে দুপুর ১টা ২০মিনিট পর্যন্ত সকল ক্লাস ও পরীক্ষা নেওয়া থেকে বিরত ছিলেন তারা। আগামীকাল বুধবার দ্বিতীয় দিনেও তাদের কর্মসূচি পালনের কথা রয়েছে।

শিক্ষকদের অন্যান্য দাবিগুলো হলো- তাদের উচ্চতর ডিগ্রির জন্য সিন্ডিকেট অনুমোদিত বেতন বৃদ্ধি বা বিশেষ বেতন প্রদান, প্রভাষকদের প্রারম্ভিক বেতন বৃদ্ধি করা এবং বকেয়া বেতন প্রদান করা।

Trulli

জানা যায়, শিক্ষকদের দাবির প্রেক্ষিতে ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে ৮৪তম সিন্ডিকেট সভায় শিক্ষকদের প্রারম্ভিক ও বার্ষিক ভাতা প্রদানের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে তা এখনো কার্যকর না হওয়ায় শিক্ষকরা কর্মবিরতি শুরু করেন। কর্মবিরতি চলাকালে দুয়েকটি বিভাগ ছাড়া অধিকাংশ বিভাগেই ক্লাস ও পরীক্ষা হয়নি।

রুয়েট শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. শামীমুর রহমান জানান, ‘বুয়েট, কুয়েট, হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক পদে যোগদানের পর থেকেই তারা বেতনের সঙ্গে চারটি করে ইনক্রিমেন্ট পান। কিন্তু রুয়েটে ২০১৭ সালের ৪ জানুয়ারির আগে, পরে এবং গত বছরের ডিসেম্বরে যারা শিক্ষক হিসেবে যোগ দিয়েছেন তাদের বেতনের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। বর্তমানে রুয়েটে দু’শর বেশি শিক্ষক রয়েছেন। তাদের মধ্যে ৫০ থেকে ৬০ জন এই বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন।

এ বিষয়ে সরকারের ঊর্ধ্বতনদের অবহিত করার জন্য একাধিকবার প্রশাসনের কাছে গিয়েও লাভ হয়নি। দাবি আদায় না হলে আগামী ২৪ এপ্রিল থেকে শিক্ষকরা অর্ধদিবস (সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১টা ২০মিনিট) কর্মবিরতি এবং অবস্থান কর্মসূচিতে যাবেন বলেও জানান তিনি।

শামীমুর রহমান বলেন, ‘প্রশাসনকে বেশ কয়েকবার আমাদের দাবির ব্যাপারে জানিয়েছিলাম। কিন্তু লাভ হয়নি। আমরা কর্মসূচি পালন করছি, কিন্তু প্রশাসন এখনও আমাদের সঙ্গে কথা বলেননি।’

রুয়েট উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. রফিকুল ইসলাম সেখ জানান, ‘আমি শিক্ষকদের ডেকে তাদেরকে ক্লাসে ফিরতে বলেছি। প্রায় প্রতিটি বিভাগেই ওই সময়ে ক্লাস হয়েছে। হয়তো কয়েকটি বিভাগে হয়নি।’

তিনি আরো বলেন, ‘শিক্ষকদের দাবির ব্যাপারে আমি আন্তরিক। তবে এই টাকাটা সরকারের কাছ থেকে আসতে হবে। সরকার টাকা দিলেই আমর শিক্ষকদের দিতে পারব।’

Adds Banner_2024

রুয়েটে বেতন বৈষম্যের প্রতিবাদে কর্মবিরতিতে শিক্ষকরা

আপডেটের সময় : ০১:১১:৩৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০১৯

রাজশাহী প্রতিনিধি: বেতন বৈষম্য দূরীকরণসহ কয়েকটি দাবিতে কর্মবিরতি পালন করেছেন রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) শিক্ষকবৃন্দ। মঙ্গলবার সকাল ১০টা ৫০ মিনিট থেকে দুপুর ১টা ২০মিনিট পর্যন্ত সকল ক্লাস ও পরীক্ষা নেওয়া থেকে বিরত ছিলেন তারা। আগামীকাল বুধবার দ্বিতীয় দিনেও তাদের কর্মসূচি পালনের কথা রয়েছে।

শিক্ষকদের অন্যান্য দাবিগুলো হলো- তাদের উচ্চতর ডিগ্রির জন্য সিন্ডিকেট অনুমোদিত বেতন বৃদ্ধি বা বিশেষ বেতন প্রদান, প্রভাষকদের প্রারম্ভিক বেতন বৃদ্ধি করা এবং বকেয়া বেতন প্রদান করা।

Trulli

জানা যায়, শিক্ষকদের দাবির প্রেক্ষিতে ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে ৮৪তম সিন্ডিকেট সভায় শিক্ষকদের প্রারম্ভিক ও বার্ষিক ভাতা প্রদানের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে তা এখনো কার্যকর না হওয়ায় শিক্ষকরা কর্মবিরতি শুরু করেন। কর্মবিরতি চলাকালে দুয়েকটি বিভাগ ছাড়া অধিকাংশ বিভাগেই ক্লাস ও পরীক্ষা হয়নি।

রুয়েট শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. শামীমুর রহমান জানান, ‘বুয়েট, কুয়েট, হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক পদে যোগদানের পর থেকেই তারা বেতনের সঙ্গে চারটি করে ইনক্রিমেন্ট পান। কিন্তু রুয়েটে ২০১৭ সালের ৪ জানুয়ারির আগে, পরে এবং গত বছরের ডিসেম্বরে যারা শিক্ষক হিসেবে যোগ দিয়েছেন তাদের বেতনের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। বর্তমানে রুয়েটে দু’শর বেশি শিক্ষক রয়েছেন। তাদের মধ্যে ৫০ থেকে ৬০ জন এই বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন।

এ বিষয়ে সরকারের ঊর্ধ্বতনদের অবহিত করার জন্য একাধিকবার প্রশাসনের কাছে গিয়েও লাভ হয়নি। দাবি আদায় না হলে আগামী ২৪ এপ্রিল থেকে শিক্ষকরা অর্ধদিবস (সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১টা ২০মিনিট) কর্মবিরতি এবং অবস্থান কর্মসূচিতে যাবেন বলেও জানান তিনি।

শামীমুর রহমান বলেন, ‘প্রশাসনকে বেশ কয়েকবার আমাদের দাবির ব্যাপারে জানিয়েছিলাম। কিন্তু লাভ হয়নি। আমরা কর্মসূচি পালন করছি, কিন্তু প্রশাসন এখনও আমাদের সঙ্গে কথা বলেননি।’

রুয়েট উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. রফিকুল ইসলাম সেখ জানান, ‘আমি শিক্ষকদের ডেকে তাদেরকে ক্লাসে ফিরতে বলেছি। প্রায় প্রতিটি বিভাগেই ওই সময়ে ক্লাস হয়েছে। হয়তো কয়েকটি বিভাগে হয়নি।’

তিনি আরো বলেন, ‘শিক্ষকদের দাবির ব্যাপারে আমি আন্তরিক। তবে এই টাকাটা সরকারের কাছ থেকে আসতে হবে। সরকার টাকা দিলেই আমর শিক্ষকদের দিতে পারব।’