রাজশাহী , বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
দাবি না মানায় রাবি উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করে রেখেছেন শিক্ষার্থীরা ছাত্রশিবির-ছাত্রদল এবং বহিরাগতরা ঢাবির হলে তাণ্ডব চালিয়েছে: মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী হল ছাড়বেন না রাবি শিক্ষার্থীরা, তিন দাবিতে বিক্ষোভ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা ঢাবির সব হল সাধারণ শিক্ষার্থীদের দখলে এবার সিটি কর্পোরেশন এলাকায় প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা হামলার ভয়ে হল ছাড়ছেন রাবি শিক্ষার্থীরা কোটা সংস্কার আন্দোলন: বৃহস্পতিবারের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা রাবির বঙ্গবন্ধু হলে অগ্নিসংযোগ, শহরে খণ্ড খণ্ড বিক্ষোভ লাঠিসোঁটা নিয়ে রাবিতে বিক্ষোভ, বঙ্গবন্ধু হলে ভাঙচুর, বাইকে আগুন রাজশাহীতে ৪ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন রাবিতে হলে ঢুকে মোটরসাইকেলে আগুন, ব্যাপক ভাঙচুর চট্টগ্রামে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ ঢাকা, চট্টগ্রাম, বগুড়া ও রাজশাহীতে বিজিবি মোতায়েন যুক্তরাষ্ট্রের বক্তব্যের প্রতিবাদ জানাল বাংলাদেশ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দিতে হবে : প্রধানমন্ত্রী কোটা আন্দোলনকারীদের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা এবার ঢামেকে আহত আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা হলে ফেরার অনুরোধ প্রত্যাখ্যান আন্দোলনকারীদের

শিগগিরই দেশে ফিরবেন ওবায়দুল কাদের

  • আপডেটের সময় : ০৪:৩৫:১৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০১৯
  • ৫১ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

ঢাকা প্রতিনিধি: সিঙ্গাপুরে ভালো আছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। বিদেশে অবস্থান করলেও দেশেই তার মন পড়ে আছে। বাংলাদেশের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড, রাজনীতি ও তার প্রিয় দল আওয়ামী লীগের বিভিন্ন বিষয়ে খোঁজ-খবর রাখছেন। সময় কাটছে দেশের বিভিন্ন টিভি চ্যানেল ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিবিসি দেখে। শিগগিরই তিনি দেশে ফিরবেন।

সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফিরে এমনটাই জানালেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) কার্ডিওলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক।

Trulli

বিএসএমএমইউ’র উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসার খোঁজ-খবর নেওয়ার জন্য অধ্যাপক ডা. হারিসুল হককে সেখানে পাঠান। অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক গত ১০ এপ্রিল সিঙ্গাপুরে যান এবং দেশে ফিরে আসেন ১৪ এপ্রিল।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) বিএসএমএমইউ’তে তার অফিসে একথা জানান অধ্যাপক হারিসুল।

হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক জানান, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বর্তমানে হৃদযন্ত্রের কার্যকারিতা ভালো। উচ্চ রক্তচাপ ও ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রিত রয়েছে। তিনি নিয়মিত (দুইবেলা) হাঁটাচলা করছেন। ১৬ এপ্রিল তার চিকিৎসার বিষয়ে একটি ফলোআপ রয়েছে। তারপরই সিদ্ধান্ত হবে তিনি কবে দেশে ফিরবেন। বর্তমানে তার দেশে ফেরার মতো অবস্থা রয়েছে। তবে তার চিকিৎসায় ব্যবহৃত ওষুধের ডোজের অ্যাডজাসমেন্ট বা ওষুধের সঠিক ডোজ নিরূপণের জন্য আরো কিছুদিন সিঙ্গাপুরে থাকা প্রয়োজন এবং সে কারণেই বর্তমানে মন্ত্রী সিঙ্গাপুরে অবস্থান করছেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) ও নিউরো মেডিসিনি বিভাগের অধ্যাপক ডা. আবু নাসার রিজভী বর্তমানে সিঙ্গাপুরে অবস্থান করছেন। অধ্যাপক ডা. আবু নাসার রিজভী বিএসএমএমইউ’র পক্ষ থেকে মন্ত্রীর সঙ্গেই সিঙ্গাপুরে যান এবং বর্তমানে তিনি সিঙ্গাপুরেই অবস্থান করছেন। প্রয়োজন হলে তিনিও আবার সিঙ্গাপুরে যাবেন।

দেশবাসীকে ওবায়দুল কাদের নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের শুভ নববর্ষ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তিনি নিজেই এ বিষয়ে একটি শুভেচ্ছা বাণী লেখেন। তার হাতের লেখা খুবই সুন্দর। ভাষাগত দক্ষতাও মুগ্ধ করার মতো। অবাক করার মতো বিষয় হলো বাংলাদেশ থেকে কেউ গেলে উল্টো তিনিই তাদের খোজ-খবর রাখছেন। ঠিকমতো খাওয়া-দাওয়া হলো কিনা, কোনো সমস্যা আছে কিনা, পছন্দের খাবার কি কি ইত্যাদি ইত্যাদি।

অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক বলেন, আরেকটি বিষয় লক্ষ্য করলাম, আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকের কথা-বার্তায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি অবিচল আস্থা, অকৃত্রিম ও অসীম ভালোবাসা এবং শ্রদ্ধার প্রকাশ ঘটেছে। আওয়ামী লীগের জন্য এমন নিবেদিত প্রাণ নেতা সত্যিই বিরল।

মন্ত্রণালয়ের কাজের ব্যাপারেও তার নজর রয়েছে জানিয়ে তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বর্তমানে সিঙ্গুপরে অবস্থান করলেও দেশের মাটিতেই তার মন পড়ে আছে। কোন সড়কের উন্নয়ন কাজ কবে শেষ করতে হবে, কোন কোন ব্রিজের কাজ কবে শেষ হবে এসবই তার মুখস্ত। তিনি অসম্ভব মেধাবী ও শক্তিশালী মনোভাবের অধিকারী। একইসঙ্গে তিনি বিরাট মন ও হৃদয়েরও অধিকারী। সিঙ্গাপুরে যেনো সব মানুষই তার আপনজন। আওয়ামী লীগের প্রত্যেক নেতা-কর্মীই তার বড় প্রিয় আপন মানুষ।

তিনি আরো জানান, দেশের সাম্প্রতিক বিভিন্ন বিষয়েও খোঁজ-খবর রাখছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক। সাম্প্রতিক একটি ঘটনার বিষয়ে তিনি উল্লেখ করে বলেন, অপরাধীদের বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আশ্রয়-প্রশ্রয় দেবে না। বর্তমান সরকার অপরাধীদের বিষয়ে কোনো ছাড় দেবে না। আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে।

Adds Banner_2024

শিগগিরই দেশে ফিরবেন ওবায়দুল কাদের

আপডেটের সময় : ০৪:৩৫:১৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০১৯

ঢাকা প্রতিনিধি: সিঙ্গাপুরে ভালো আছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। বিদেশে অবস্থান করলেও দেশেই তার মন পড়ে আছে। বাংলাদেশের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড, রাজনীতি ও তার প্রিয় দল আওয়ামী লীগের বিভিন্ন বিষয়ে খোঁজ-খবর রাখছেন। সময় কাটছে দেশের বিভিন্ন টিভি চ্যানেল ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিবিসি দেখে। শিগগিরই তিনি দেশে ফিরবেন।

সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফিরে এমনটাই জানালেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) কার্ডিওলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক।

Trulli

বিএসএমএমইউ’র উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসার খোঁজ-খবর নেওয়ার জন্য অধ্যাপক ডা. হারিসুল হককে সেখানে পাঠান। অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক গত ১০ এপ্রিল সিঙ্গাপুরে যান এবং দেশে ফিরে আসেন ১৪ এপ্রিল।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) বিএসএমএমইউ’তে তার অফিসে একথা জানান অধ্যাপক হারিসুল।

হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক জানান, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বর্তমানে হৃদযন্ত্রের কার্যকারিতা ভালো। উচ্চ রক্তচাপ ও ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রিত রয়েছে। তিনি নিয়মিত (দুইবেলা) হাঁটাচলা করছেন। ১৬ এপ্রিল তার চিকিৎসার বিষয়ে একটি ফলোআপ রয়েছে। তারপরই সিদ্ধান্ত হবে তিনি কবে দেশে ফিরবেন। বর্তমানে তার দেশে ফেরার মতো অবস্থা রয়েছে। তবে তার চিকিৎসায় ব্যবহৃত ওষুধের ডোজের অ্যাডজাসমেন্ট বা ওষুধের সঠিক ডোজ নিরূপণের জন্য আরো কিছুদিন সিঙ্গাপুরে থাকা প্রয়োজন এবং সে কারণেই বর্তমানে মন্ত্রী সিঙ্গাপুরে অবস্থান করছেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) ও নিউরো মেডিসিনি বিভাগের অধ্যাপক ডা. আবু নাসার রিজভী বর্তমানে সিঙ্গাপুরে অবস্থান করছেন। অধ্যাপক ডা. আবু নাসার রিজভী বিএসএমএমইউ’র পক্ষ থেকে মন্ত্রীর সঙ্গেই সিঙ্গাপুরে যান এবং বর্তমানে তিনি সিঙ্গাপুরেই অবস্থান করছেন। প্রয়োজন হলে তিনিও আবার সিঙ্গাপুরে যাবেন।

দেশবাসীকে ওবায়দুল কাদের নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের শুভ নববর্ষ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তিনি নিজেই এ বিষয়ে একটি শুভেচ্ছা বাণী লেখেন। তার হাতের লেখা খুবই সুন্দর। ভাষাগত দক্ষতাও মুগ্ধ করার মতো। অবাক করার মতো বিষয় হলো বাংলাদেশ থেকে কেউ গেলে উল্টো তিনিই তাদের খোজ-খবর রাখছেন। ঠিকমতো খাওয়া-দাওয়া হলো কিনা, কোনো সমস্যা আছে কিনা, পছন্দের খাবার কি কি ইত্যাদি ইত্যাদি।

অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক বলেন, আরেকটি বিষয় লক্ষ্য করলাম, আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকের কথা-বার্তায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি অবিচল আস্থা, অকৃত্রিম ও অসীম ভালোবাসা এবং শ্রদ্ধার প্রকাশ ঘটেছে। আওয়ামী লীগের জন্য এমন নিবেদিত প্রাণ নেতা সত্যিই বিরল।

মন্ত্রণালয়ের কাজের ব্যাপারেও তার নজর রয়েছে জানিয়ে তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বর্তমানে সিঙ্গুপরে অবস্থান করলেও দেশের মাটিতেই তার মন পড়ে আছে। কোন সড়কের উন্নয়ন কাজ কবে শেষ করতে হবে, কোন কোন ব্রিজের কাজ কবে শেষ হবে এসবই তার মুখস্ত। তিনি অসম্ভব মেধাবী ও শক্তিশালী মনোভাবের অধিকারী। একইসঙ্গে তিনি বিরাট মন ও হৃদয়েরও অধিকারী। সিঙ্গাপুরে যেনো সব মানুষই তার আপনজন। আওয়ামী লীগের প্রত্যেক নেতা-কর্মীই তার বড় প্রিয় আপন মানুষ।

তিনি আরো জানান, দেশের সাম্প্রতিক বিভিন্ন বিষয়েও খোঁজ-খবর রাখছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক। সাম্প্রতিক একটি ঘটনার বিষয়ে তিনি উল্লেখ করে বলেন, অপরাধীদের বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আশ্রয়-প্রশ্রয় দেবে না। বর্তমান সরকার অপরাধীদের বিষয়ে কোনো ছাড় দেবে না। আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে।