রাজশাহী , বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
হামলার ভয়ে হল ছাড়ছেন রাবি শিক্ষার্থীরা কোটা সংস্কার আন্দোলন: বৃহস্পতিবারের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা রাবির বঙ্গবন্ধু হলে অগ্নিসংযোগ, শহরে খণ্ড খণ্ড বিক্ষোভ লাঠিসোঁটা নিয়ে রাবিতে বিক্ষোভ, বঙ্গবন্ধু হলে ভাঙচুর, বাইকে আগুন রাজশাহীতে ৪ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন রাবিতে হলে ঢুকে মোটরসাইকেলে আগুন, ব্যাপক ভাঙচুর চট্টগ্রামে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ ঢাকা, চট্টগ্রাম, বগুড়া ও রাজশাহীতে বিজিবি মোতায়েন যুক্তরাষ্ট্রের বক্তব্যের প্রতিবাদ জানাল বাংলাদেশ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দিতে হবে : প্রধানমন্ত্রী কোটা আন্দোলনকারীদের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা এবার ঢামেকে আহত আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা হলে ফেরার অনুরোধ প্রত্যাখ্যান আন্দোলনকারীদের হামলা-সংঘর্ষের পর ঢাবি ক্যাম্পাসে ‘অ্যাকশনে’ যাবে পুলিশ শহীদুল্লাহ হলের সামনে ফের সংঘর্ষ, ৪ ককটেল বিস্ফোরণ চট্টগ্রামে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ ঢাবিতে কোটা আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা, আহত অন্তত ৮০ ঢাবিতে আন্দোলনকারী-ছাত্রলীগ মুখোমুখি, ইট-পাটকেল নিক্ষেপ রাজাকারের নাতিরা সব পাবে, মুক্তিযোদ্ধার নাতিপুতিরা কিছুই পাবে না?

পাকিস্তানে ভারত সীমান্তের কাছে চীনা সৈন্য মোতায়েন

  • আপডেটের সময় : ০৭:২৪:২০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০১৯
  • ৭৬ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

জনপদ ডেস্ক: ভারতের উদ্বেগ আরও বাড়াল চীন। সেনাবাহিনীর একটি ফোর্সকে পাকিস্তানে মোতায়েন করল বেইজিং।

বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে চীনের একটি সেনাদল মোতায়েন করা হয়েছে। মূলত ভারত-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডর বা সিপিইসি’র নিরাপত্তার লক্ষ্যে এই বাহিনীকে পাক-ভারত আন্তর্জাতিক সীমান্ত থেকে মাত্র ৯০ কিলোমিটার দূরে মোতায়েন করা হয়েছে, যা যথেষ্ট চিন্তার কারণ ভারতের কাছে।

Trulli

যদিও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বিএসএফ তাদের সীমান্তের নিকটবর্তী এলাকায় চীনা সেনাদের গতিবিধি লক্ষ্য করছে এবং নজর রাখছে বলে জানা গেছে।

এদিকে এর আগে তিন হাজার কিলোমিটার করিডরের নিরাপত্তায় পাকিস্তান ১৭ হাজার সেনা মোতায়েন করেছে।

ভারতের প্রাক্তন এক সেনা কর্মকর্তা অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল হারশা কাকার রাশিয়ান একটি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, চীনের সেনাদল মোতায়েন ভারতের জন্য যথেষ্ট চিন্তার। প্রয়োজনে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারত কোনও সেনা অভিযান চালাতে গেলে চীনের এই বাহিনী বাধা হয়ে দেখা দিতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি।

অবশ্য, এই বাহিনী মোতায়েনের মধ্যে দিয়ে বেইজিং-ইসলামাবাদ সম্পর্ক আরও ঘনিষ্ঠ হওয়ার আভাসই পাওয়া যাচ্ছে বলেও স্বীকার করেন।

পাশাপাশি এই বাহিনী মোতায়েন প্রসঙ্গে পাকিস্তানের কঠোর সমালোচনা করে তিনি দাবি করেন, তার ভাষায়, সুস্থ মাথার কোনও দেশ এই ধরনের মোতায়েনের অনুমতি কখনই দেবে না। কীভাবে পাকিস্তান তা মেনে নিল তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি।

প্রসঙ্গত, সিপিইসি’র আওতাধীন কোটি কোটি ডলারের প্রকল্পগুলির কাজ চলছে এখন পাকিস্তানে। প্রাথমিকভাবে এই সমস্ত প্রকল্প খাতে ৪৬ বিলিয়ন ডলার ব্যয় হবে বলে উল্লেখ করা হলেও বর্তমানে এই ব্যয়ের হিসাব ৬২ বিলিয়ন ডলারও অতিক্রম করেছে। আর সেই নিরাপত্তার কারণেই পাকিস্তানের মাটিতে বিপুল পরিমাণ সেনাবাহিনী মোতায়েনে অনুমতি দিয়েছে ইমরান খান সরকার।

Adds Banner_2024

পাকিস্তানে ভারত সীমান্তের কাছে চীনা সৈন্য মোতায়েন

আপডেটের সময় : ০৭:২৪:২০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০১৯

জনপদ ডেস্ক: ভারতের উদ্বেগ আরও বাড়াল চীন। সেনাবাহিনীর একটি ফোর্সকে পাকিস্তানে মোতায়েন করল বেইজিং।

বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে চীনের একটি সেনাদল মোতায়েন করা হয়েছে। মূলত ভারত-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডর বা সিপিইসি’র নিরাপত্তার লক্ষ্যে এই বাহিনীকে পাক-ভারত আন্তর্জাতিক সীমান্ত থেকে মাত্র ৯০ কিলোমিটার দূরে মোতায়েন করা হয়েছে, যা যথেষ্ট চিন্তার কারণ ভারতের কাছে।

Trulli

যদিও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বিএসএফ তাদের সীমান্তের নিকটবর্তী এলাকায় চীনা সেনাদের গতিবিধি লক্ষ্য করছে এবং নজর রাখছে বলে জানা গেছে।

এদিকে এর আগে তিন হাজার কিলোমিটার করিডরের নিরাপত্তায় পাকিস্তান ১৭ হাজার সেনা মোতায়েন করেছে।

ভারতের প্রাক্তন এক সেনা কর্মকর্তা অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল হারশা কাকার রাশিয়ান একটি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, চীনের সেনাদল মোতায়েন ভারতের জন্য যথেষ্ট চিন্তার। প্রয়োজনে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারত কোনও সেনা অভিযান চালাতে গেলে চীনের এই বাহিনী বাধা হয়ে দেখা দিতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি।

অবশ্য, এই বাহিনী মোতায়েনের মধ্যে দিয়ে বেইজিং-ইসলামাবাদ সম্পর্ক আরও ঘনিষ্ঠ হওয়ার আভাসই পাওয়া যাচ্ছে বলেও স্বীকার করেন।

পাশাপাশি এই বাহিনী মোতায়েন প্রসঙ্গে পাকিস্তানের কঠোর সমালোচনা করে তিনি দাবি করেন, তার ভাষায়, সুস্থ মাথার কোনও দেশ এই ধরনের মোতায়েনের অনুমতি কখনই দেবে না। কীভাবে পাকিস্তান তা মেনে নিল তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি।

প্রসঙ্গত, সিপিইসি’র আওতাধীন কোটি কোটি ডলারের প্রকল্পগুলির কাজ চলছে এখন পাকিস্তানে। প্রাথমিকভাবে এই সমস্ত প্রকল্প খাতে ৪৬ বিলিয়ন ডলার ব্যয় হবে বলে উল্লেখ করা হলেও বর্তমানে এই ব্যয়ের হিসাব ৬২ বিলিয়ন ডলারও অতিক্রম করেছে। আর সেই নিরাপত্তার কারণেই পাকিস্তানের মাটিতে বিপুল পরিমাণ সেনাবাহিনী মোতায়েনে অনুমতি দিয়েছে ইমরান খান সরকার।