রাজশাহী , রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
রাজাকারের নাতিরা সব পাবে, মুক্তিযোদ্ধার নাতিপুতিরা কিছুই পাবে না? আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে দাঁড়ানোর অধিকার আমার নেই ফের ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম, দৃশ্যমান পদক্ষেপ চান কোটা আন্দোলনকারীরা আবাসন এবং হসপিটালিটি খাতে বিনিয়োগে আগ্রহী চীন : প্রধানমন্ত্রী ব্যারিকেড ভেঙে ফেলেছেন শিক্ষার্থীরা, যাচ্ছেন বঙ্গভবনের দিকে ট্রাম্পের ওপর হামলা নির্বাচনী প্রচারণায় কতটা প্রভাব ফেলবে? পূর্বঘোষিত গণপদযাত্রায় অংশ নিতে জড়ো হচ্ছেন শিক্ষার্থীরা ৭ অঞ্চলে সন্ধ্যার মধ্যে ঝড়ের আভাস কানে গুলিবিদ্ধ ট্রাম্প, বলছেন– যুক্তরাষ্ট্রে এমন হামলা অবিশ্বাস্য মামলা তুলে নিতে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম কোটা আন্দোলনকারীদের কোটা আন্দোলন : গণপদযাত্রা ও রাষ্ট্রপতিকে স্মারকলিপি দেবেন শিক্ষার্থীরা ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে সরকার : প্রধানমন্ত্রী পেনশন স্কিম নিয়ে ভুল বোঝাবুঝি দূর হয়েছে : ওবায়দুল কাদের ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকরা সরকার চাইলে কোটা পরিবর্তন করতে পারবে, হাইকোর্টের রায় প্রকাশ ব্যারিকেড ভেঙে ‘ভুয়া ভুয়া’ স্লোগান, উত্তাল শাহবাগ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ আন্দোলনকে বেগবান করতে জনসংযোগ, সমন্বয় করে কর্মসূচির ঘোষণা আজ চলমান কোটা আন্দোলন নিয়ে ছাত্রলীগের সংবাদ সম্মেলন কোটা আন্দোলনকারীদের জন্য আদালতের দরজা সবসময় খোলা

চীনে মুসলিমদের নির্যাতনের সঙ্গে গুঁড়িয়ে দেয়া হচ্ছে মসজিদ

  • আপডেটের সময় : ০৬:৫১:০২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৯ এপ্রিল ২০১৯
  • ১০০ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

জনপদ ডেস্ক: চীনে সংখ্যালঘু উইঘুর মুসলিমদের ওপর নানা নির্যাতনের সঙ্গে তাদের মসজিদ গুঁড়িয়ে দেয়া হচ্ছে। সম্প্রতি স্যাটেলাইট ছবিতে মসজিদ ভাঙার প্রমাণ ধরা পড়েছে বলে খবরে বলা হয়েছে।

সোয়াস ইউনিভার্সিটি অফ লন্ডনের রিডার র‍্যাচেল হ্যারিস দ্য গার্ডিয়ানের সম্পাদকীয়তে জানান, গত সপ্তাহে টুইটারে শন ঝ্যাং নামে একজন সাংবাদিক স্যাটেলাইটের তোলা দু’টি ছবি প্রকাশ করেছে।

Trulli

ছবিতে দেখা যায়, দক্ষিণের হোতান অঞ্চলের কেরিয়া মসজিদটি যেখানে ছিল, ওই জায়গা এখন একদম ফাঁকা।

প্রায় ৮০০ বছর আগে ১২৩৭ সালে অসাধারণ এই স্থাপত্য নিদর্শনটি তৈরি হয়েছিল। ১৯৮০ ও ১৯৯০’র দশকে এটির ব্যাপক সংস্কার করা হয়।

২০১৬ সালে তোলা একটি ছবিতে দেখা যায় এক উৎসবের দিন মসজিদটির সামনের রাস্তায় হাজার হাজার মানুষ সমবেত হয়েছে। আর ২০১৮ সালে দেখা মসজিদটি যেখানে দাঁড়িয়ে ছিল সেখানে শুধুই সমান জমি।

র‍্যাচেল আরো বলেন, ২০১৭ সালে কুমুল এলাকায় গিয়ে একজন প্রতিবেদক স্থানীয় কর্মকর্তার কাছে জানতে পারেন, ওই অঞ্চলের ৮০০টি মসজিদের মধ্যে ২০০টি ইতিমধ্যেই ধ্বংস করে ফেলা হয়েছিল এবং ২০১৮ সালের মধ্যে আরও ৫০০ মসজিদ গুঁড়িয়ে দেয়ার কর্মসূচি নেয়া হয়েছিল।

এছাড়া কথিত ‘পুনর্বাসন শিবিরে’ সংখ্যালঘু মুসলিমদের আটকে রেখে নির্যাতন চালাচ্ছে চীন।

সংখ্যালঘু উইঘুর মুসলিম সম্প্রদায়ের ২০ লাখেরও বেশি মানুষকে এক ধরনের বন্দীশিবিরে আটকে রেখেছে চীন। দেশটি মুসলিমদের ওপর গত কয়েক বছর ধরে নানা অত্যাচার করছে বলে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ও পশ্চিমা অনেক দেশ অভিযোগ তুলেছে।

চীনে মুসলিমদের ওপর নির্যাতনের ব্যাপারে বরাবরই অভিযোগ করে আসছে তুরস্ক। দেশটি গত মাসে উইঘুর সম্প্রদায়ের ওপর এ নির্যাতনকে ‘মানবতার জন্য লজ্জাজনক’ বলে আখ্যা দেয়। একই সঙ্গে বন্দীশিবির বন্ধ করে দেয়ার আহ্বান জানায়।

এছাড়া অনেক পশ্চিমা দেশ মুসলিমদের ওপর নির্যাতনের কড়া নিন্দা জানায়। গত বছর জাতিসংঘ জানায়, উইঘুরের ১০ লাখ মুসলিম মানুষকে আটক রেখেছে চীন। তথ্যসূত্র: গার্ডিয়ান, বিবিসি, ইয়েনি শাফাক, ফোর্বস।

Adds Banner_2024
জনপ্রিয় পোস্ট
Adds Banner_2024

বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ নেতার মায়ের মৃত্যুতে শোক

Adds Banner_2024

চীনে মুসলিমদের নির্যাতনের সঙ্গে গুঁড়িয়ে দেয়া হচ্ছে মসজিদ

আপডেটের সময় : ০৬:৫১:০২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৯ এপ্রিল ২০১৯

জনপদ ডেস্ক: চীনে সংখ্যালঘু উইঘুর মুসলিমদের ওপর নানা নির্যাতনের সঙ্গে তাদের মসজিদ গুঁড়িয়ে দেয়া হচ্ছে। সম্প্রতি স্যাটেলাইট ছবিতে মসজিদ ভাঙার প্রমাণ ধরা পড়েছে বলে খবরে বলা হয়েছে।

সোয়াস ইউনিভার্সিটি অফ লন্ডনের রিডার র‍্যাচেল হ্যারিস দ্য গার্ডিয়ানের সম্পাদকীয়তে জানান, গত সপ্তাহে টুইটারে শন ঝ্যাং নামে একজন সাংবাদিক স্যাটেলাইটের তোলা দু’টি ছবি প্রকাশ করেছে।

Trulli

ছবিতে দেখা যায়, দক্ষিণের হোতান অঞ্চলের কেরিয়া মসজিদটি যেখানে ছিল, ওই জায়গা এখন একদম ফাঁকা।

প্রায় ৮০০ বছর আগে ১২৩৭ সালে অসাধারণ এই স্থাপত্য নিদর্শনটি তৈরি হয়েছিল। ১৯৮০ ও ১৯৯০’র দশকে এটির ব্যাপক সংস্কার করা হয়।

২০১৬ সালে তোলা একটি ছবিতে দেখা যায় এক উৎসবের দিন মসজিদটির সামনের রাস্তায় হাজার হাজার মানুষ সমবেত হয়েছে। আর ২০১৮ সালে দেখা মসজিদটি যেখানে দাঁড়িয়ে ছিল সেখানে শুধুই সমান জমি।

র‍্যাচেল আরো বলেন, ২০১৭ সালে কুমুল এলাকায় গিয়ে একজন প্রতিবেদক স্থানীয় কর্মকর্তার কাছে জানতে পারেন, ওই অঞ্চলের ৮০০টি মসজিদের মধ্যে ২০০টি ইতিমধ্যেই ধ্বংস করে ফেলা হয়েছিল এবং ২০১৮ সালের মধ্যে আরও ৫০০ মসজিদ গুঁড়িয়ে দেয়ার কর্মসূচি নেয়া হয়েছিল।

এছাড়া কথিত ‘পুনর্বাসন শিবিরে’ সংখ্যালঘু মুসলিমদের আটকে রেখে নির্যাতন চালাচ্ছে চীন।

সংখ্যালঘু উইঘুর মুসলিম সম্প্রদায়ের ২০ লাখেরও বেশি মানুষকে এক ধরনের বন্দীশিবিরে আটকে রেখেছে চীন। দেশটি মুসলিমদের ওপর গত কয়েক বছর ধরে নানা অত্যাচার করছে বলে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ও পশ্চিমা অনেক দেশ অভিযোগ তুলেছে।

চীনে মুসলিমদের ওপর নির্যাতনের ব্যাপারে বরাবরই অভিযোগ করে আসছে তুরস্ক। দেশটি গত মাসে উইঘুর সম্প্রদায়ের ওপর এ নির্যাতনকে ‘মানবতার জন্য লজ্জাজনক’ বলে আখ্যা দেয়। একই সঙ্গে বন্দীশিবির বন্ধ করে দেয়ার আহ্বান জানায়।

এছাড়া অনেক পশ্চিমা দেশ মুসলিমদের ওপর নির্যাতনের কড়া নিন্দা জানায়। গত বছর জাতিসংঘ জানায়, উইঘুরের ১০ লাখ মুসলিম মানুষকে আটক রেখেছে চীন। তথ্যসূত্র: গার্ডিয়ান, বিবিসি, ইয়েনি শাফাক, ফোর্বস।