রাজশাহী , বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
আগামীকাল সারাদেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঘোষণা আন্দোলনকারীদের প্রাণহানির প্রতিটি ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত হবে : প্রধানমন্ত্রী হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা নেওয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী অহেতুক কতগুলো মূল্যবান জীবন ঝরে গেল : প্রধানমন্ত্রী আন্দোলনকারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশ সহযোগিতা করেছে: প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী দাবি না মানায় রাবি উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করে রেখেছেন শিক্ষার্থীরা ছাত্রশিবির-ছাত্রদল এবং বহিরাগতরা ঢাবির হলে তাণ্ডব চালিয়েছে: মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী হল ছাড়বেন না রাবি শিক্ষার্থীরা, তিন দাবিতে বিক্ষোভ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা ঢাবির সব হল সাধারণ শিক্ষার্থীদের দখলে এবার সিটি কর্পোরেশন এলাকায় প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা হামলার ভয়ে হল ছাড়ছেন রাবি শিক্ষার্থীরা কোটা সংস্কার আন্দোলন: বৃহস্পতিবারের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা রাবির বঙ্গবন্ধু হলে অগ্নিসংযোগ, শহরে খণ্ড খণ্ড বিক্ষোভ লাঠিসোঁটা নিয়ে রাবিতে বিক্ষোভ, বঙ্গবন্ধু হলে ভাঙচুর, বাইকে আগুন রাজশাহীতে ৪ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন রাবিতে হলে ঢুকে মোটরসাইকেলে আগুন, ব্যাপক ভাঙচুর চট্টগ্রামে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ

নিয়ন্ত্রণে আসেনি আগুন, ছড়িয়ে পড়ছে কুমিল্লা ইপিজেডের চারিদিকে

  • আপডেটের সময় : ০৮:৫৯:৫২ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ এপ্রিল ২০১৯
  • ১৬০ টাইম ভিউ
Adds Banner_2024

কুমিল্লা প্রতিনিধিঃ  কুমিল্লা ইপিজেডের আরএন স্পিনিং মিল নামের একটি সুতা কারখানায় বড় ধরনের আগুন লেগেছে। ফায়ার সার্ভিসের ১১টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে।

সময় বাড়ার সাথে সাথে ক্রমেই আগুনের ভয়াবহতা বৃদ্ধি পাচ্ছে, ছড়িয়ে পড়ছে আগুন চারিদিকে । প্রচণ্ড ধোয়ায় আচ্ছন্ন হয়ে পড়েছে পুরো ইপিজেড এলাকা।

Trulli

সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে ওই আগুনের সূত্রপাত হয়ে পুরো কারখানায় ছড়িয়ে পড়ে। রাত পৌনে ১টা পর্যন্ত আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স কুমিল্লা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক রতন কুমার নাথ।

তিনি বলেন, প্রথমে ঘটনাস্থলে যায় ইপিজেড ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিট। পরে আগুনের ভয়াবহতার কারণে চৌয়ারা বাজার ও কুমিল্লা ফায়ার সার্ভিসের আরও ৮টি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে।

আগুন লাগার কারণ ও ক্ষতির পরিমাণ তিনি তাৎক্ষণিক জানাতে পারেননি। কুমিল্লার পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম ইপিজেড গেইটে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, কারখানার অ্যাক্রোলিক ডিভিশনে আগুন লাগার ঘটনা ঘটে।

তবে আগুন লাগার কারণ জানা যায়নি। আগুনে কেউ আহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। এদিকে ইপিজেডের বাইরে উৎসুক হাজারো মানুষের ভিড় দেখা গেছে।

অগ্নিকাণ্ডের আগমুহূর্তে কারখানার ভিতরে ১৫০০ শ্রমিক কাজ করছিল বলে জানা গেছে। কুমিল্লা ইপিজেডে চারদিক পুলিশ ঘিরে রেখেছে। কাউকে ভেতরে যেতে দেওয়া হচ্ছে না।

বাংলাদেশ এক্সপোর্ট প্রসেসিং জোন অথরিটি’র (বেপজা)র সোস্যাল কাউন্সিলর সোহেল মিয়া জানান, রাত সাড়ে ৯টার দিকে শ্রমিকরা যখন তাদের শিফটের কাজ শেষ করে বের হওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিল তখন কোম্পানির গোডাউন থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখা যায়। এ সময় ফায়ার এলার্ম বেজে উঠলে শ্রমিকরা নিরাপদে কর্মস্থল ত্যাগ করতে পারেন।

 

Adds Banner_2024
Adds Banner_2024

রাবিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযান, ৪ ঘণ্টা পর অবমুক্ত উপাচার্য

Adds Banner_2024

নিয়ন্ত্রণে আসেনি আগুন, ছড়িয়ে পড়ছে কুমিল্লা ইপিজেডের চারিদিকে

আপডেটের সময় : ০৮:৫৯:৫২ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ এপ্রিল ২০১৯

কুমিল্লা প্রতিনিধিঃ  কুমিল্লা ইপিজেডের আরএন স্পিনিং মিল নামের একটি সুতা কারখানায় বড় ধরনের আগুন লেগেছে। ফায়ার সার্ভিসের ১১টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে।

সময় বাড়ার সাথে সাথে ক্রমেই আগুনের ভয়াবহতা বৃদ্ধি পাচ্ছে, ছড়িয়ে পড়ছে আগুন চারিদিকে । প্রচণ্ড ধোয়ায় আচ্ছন্ন হয়ে পড়েছে পুরো ইপিজেড এলাকা।

Trulli

সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে ওই আগুনের সূত্রপাত হয়ে পুরো কারখানায় ছড়িয়ে পড়ে। রাত পৌনে ১টা পর্যন্ত আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স কুমিল্লা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক রতন কুমার নাথ।

তিনি বলেন, প্রথমে ঘটনাস্থলে যায় ইপিজেড ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিট। পরে আগুনের ভয়াবহতার কারণে চৌয়ারা বাজার ও কুমিল্লা ফায়ার সার্ভিসের আরও ৮টি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে।

আগুন লাগার কারণ ও ক্ষতির পরিমাণ তিনি তাৎক্ষণিক জানাতে পারেননি। কুমিল্লার পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম ইপিজেড গেইটে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, কারখানার অ্যাক্রোলিক ডিভিশনে আগুন লাগার ঘটনা ঘটে।

তবে আগুন লাগার কারণ জানা যায়নি। আগুনে কেউ আহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। এদিকে ইপিজেডের বাইরে উৎসুক হাজারো মানুষের ভিড় দেখা গেছে।

অগ্নিকাণ্ডের আগমুহূর্তে কারখানার ভিতরে ১৫০০ শ্রমিক কাজ করছিল বলে জানা গেছে। কুমিল্লা ইপিজেডে চারদিক পুলিশ ঘিরে রেখেছে। কাউকে ভেতরে যেতে দেওয়া হচ্ছে না।

বাংলাদেশ এক্সপোর্ট প্রসেসিং জোন অথরিটি’র (বেপজা)র সোস্যাল কাউন্সিলর সোহেল মিয়া জানান, রাত সাড়ে ৯টার দিকে শ্রমিকরা যখন তাদের শিফটের কাজ শেষ করে বের হওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিল তখন কোম্পানির গোডাউন থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখা যায়। এ সময় ফায়ার এলার্ম বেজে উঠলে শ্রমিকরা নিরাপদে কর্মস্থল ত্যাগ করতে পারেন।