spot_img

শরৎকাল  - মঙ্গলবার | ১২ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ১লা রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি | ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শরৎকাল  - মঙ্গলবার | ১২ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ১লা রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

বিক্রি হয়ে গেলো বগুড়ার প্রথম ফোর স্টার হোটেল নাজ গার্ডেন

spot_img
- বিজ্ঞাপন - 01309003902 -

জনপদ ডেস্ক : বগুড়ার প্রথম ফোর স্টার হোটেল নাজ গার্ডেন বিক্রি করে দিয়েছেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শোকরানা। সম্প্রতি হোটেলটি কিনে নেয় আকিজ শিল্পগোষ্ঠি।

সোমবার (২৪ জানুয়ারি) এ সংক্রান্ত একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। একই সঙ্গে এক সময়ের প্রভাবশালী ব্যবসায়ী শোকরানা বগুড়া শহরে তার দামি সম্পত্তি বিক্রি করেছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে শোকরানার একজন বন্ধু জানান, রাজনীতি থেকে অবসরের পর তিনি তার বড় সম্পত্তি নাজ গার্ডেনটি সম্প্রতি দেশের বৃহৎ শিল্পগ্রুপ আকিজ শিল্পগোষ্ঠির কাছে বিক্রি করেছেন। শিগগিরিই আকিজ গ্রুপ তাদের সাইনবোর্ড লাগিয়ে মালিকানা পরিবর্তনের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবে। তবে ঘোষণার আগ মুহূর্ত পর্যন্ত গোপনীয়তা অবলম্বন করা হচ্ছে।

সূত্র জানায়, প্রায় ১৪ একর জমির উপর নির্মিত বগুড়ার প্রথম ফোর স্টার হোটেল নাজ গার্ডেন ইতিমধ্যে ১৫৭ কোটি টাকা দাম উঠেছে। তবে ১৫৭ থেকে ২০০ কোটি টাকার মধ্যে প্রতিষ্ঠানটি কিনেছেনে আকিজ গ্রুপ। তবে দামের সঠিক তথ্যটি জানা যায়নি।

সোমবার বিকেলে সামাজিক মাধ্যমে একটি ছবি ছড়িয়ে পড়লে বিকেলে হোটেলে গিয়ে দেখা যায়, মাঝের মূল ভবনের ছাদে চারজন মিস্ত্রি সাইনবোর্ড লাগানোর কাজ করছেন। তবে সন্ধ্যা পর্যন্ত সেটি ঝুলানো হয়নি।

সিকিউরিটি গার্ডের পোশাক পরিহিত একজন গেটম্যান জানান, তাদের এই প্রতিষ্ঠান বিক্রি হয়ে গেছে। মঙ্গলবার নতুন সাইনবোর্ড ঝুলানো হবে। তবে বিক্রির ব্যাপারে বিস্তারিত আর কোনো তথ্য তিনি জানাতে পারেননি।

এদিকে, নাজ গার্ডেনের নতুন ক্রেতা তাদের প্রথম কর্মকান্ডের অংশ হিসেবে হোটেলের বার বন্ধ করে দিয়েছেন। বারের সাবেক ম্যানেজার বাদল জানান, সোমবার থেকেই বারের সব কর্মকান্ড বন্ধ রাখতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এদিকে, আকিজ শিল্পগোষ্ঠির বগুড়া অফিসের একাধিক কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তারা এ ব্যাপারে মুখ খোলেনি। নাজ গার্ডেন কেনা সম্পর্কে কোন তথ্য তাদের জানা নেই এমন দাবি করেছেন। সোমবার শোকরানার ব্যক্তিগত মোবাইলে ফোন করলে সেটি বন্ধ পাওয়া যায়। তার ছোট ছেলে রন্টির মোবাইলও বন্ধ ছিল। সূত্র Ñ জাগো নিউজ

spot_img

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, banglarjanapad@gmail.com ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন BanglarJanapad আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

এই বিভাগের আরও খবর
- বিজ্ঞাপন - 01309003902 spot_img

সর্বাধিক পঠিত

- বিজ্ঞাপন - 01309003902spot_img