হেমন্তকাল  - বুধবার | ১১ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২১শে রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি | ২৭শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

হেমন্তকাল  - বুধবার | ১১ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২১শে রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের আবাসন ব্যবস্থাপনা নিয়ে যা বললেন প্রভাষক রেজভী আহমেদ ভুঁইয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ৪ অক্টোবর শুরু হবে। আর শেষ হবে ৬ অক্টোবর। বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে এক বিজ্ঞপ্তিতে ভর্তি পরীক্ষা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায়, আগামী ৪ অক্টোবর (সোমবার) “সি” ইউনিটের (বিজ্ঞান) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তিনটি শিফটে এই ইউনিটের পরীক্ষা নেয়া হবে। প্রথম শিফটে পরীক্ষা সকাল সাড়ে ৯টায় শুরু হয়ে শেষ হবে সাড়ে ১০টায়। প্রথম শিফটে বিজ্ঞানের গ্রুপ-১ এর শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করবে। দ্বিতীয় শিফটের পরীক্ষা বেলা ১২টায় শুরু হয়ে শেষ হবে ১টায়। এই শিফটে বিজ্ঞানের গ্রুপ-২ এর শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করবে। তৃতীয় শিফটের পরীক্ষা বিকেল ৩টায় শুরু হয়ে শেষ হবে ৪টায়। এই শিফটে বিজ্ঞানের গ্রুপ-৩ এর শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা দেবে।

৫ অক্টোবর (মঙ্গলবার) “এ” ইউনিটের পরীক্ষাও তিনটি শিফটে অনুষ্ঠিত হবে। বিজ্ঞান, মানবিক, বাণিজ্য সব বিভাগের শিক্ষার্থীরা এ ইউনিটে পরীক্ষা দিতে পারে। এছাড়া আগামী ৬ অক্টোবর (বুধবার) “বি” ইউনিটের (বাণিজ্য) ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের আবাসন সহ সার্বিক ব্যবস্থাপনা নিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রপ সায়েন্স এন্ড টেকনোলোজি বিভাগের প্রভাষক রেজভী আহমেদ ভুঁইয়া নিজ ফেইসবুক টাইমলাইনে একটি পোস্ট করেন তা নিচে সম্পূর্ণ তুলে ধরা হল,
ঢাবি এবং রাবির ভর্তি পরীক্ষা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হবে। ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের আবাসন সহ সার্বিক ব্যবস্থাপনা নিয়ে অনেকে জানতে চেয়েছেন /অনেকে পরামর্শ চেয়েছেন, তাদের জন্য আমার কিছু অবজারভেশন-
১.রাজশাহী শহরে ৬০-৬৫টি আবাসিক হোটেল আছে সিট ক্যাপাসিটি ২০০০+ যারা একটু ভালো ভাবে থাকতে চান তারা আগে থেকেই বুকিং দিয়ে রাখতে পারেন।
২.রাজশাহীতে নিবন্ধিত এবং অনিবন্ধিত মেসের সংখ্যা ৫০০০+ যেখানে সিট ক্যাপাসিটি প্রায় ১,৫০,০০০। আশা করছি এটি সবচেয়ে বড় সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।
৩.তথ্য বলছে রাবিতে  ৫০% শিক্ষার্থী টিকা নিয়েছেন যার কারনে হল একবারেই উন্মুক্ত করার সুযোগ নেই যদিও সব হলে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা সহ সার্বিক কাজ চলছে। চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসবে ৩০সেপ্টেম্বর একাডেমিক কাউন্সিল থেকে।
৪.হলের ব্যক্তিগত কক্ষ ছাড়া ছেলে-মেয়েদের ১৭টি হলে গেমস রুম,পেপার রুম,জিমনেসিয়াম, মসজিদ ইত্যাদি স্থানে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্বল্প সংখ্যক পরীক্ষার্থীদের থাকার ব্যবস্থা করা হতে পারে যার চূড়ান্ত প্রস্তুতি চলছে এবং মাননীয় উপাচার্য মহোদয় এ ব্যাপারে নিশ্চয় দিকনির্দেশনা দিবেন আমরা আশাবাদী।
৫.সার্বক্ষণিক চিকিৎসা সেবার নিশ্চিত করনে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কাজ করছে পাশাপাশি স্বেচ্ছাসেবী টিম ও কাজ করবে বলে আমরা আশাবাদী।
৬.৪৫ হাজার করে ৩টি ইউনিটের প্রতি ইউনিট ৩ সিফট এ অর্থাৎ ১৫ হাজার করে অংশগ্রহণ করবে। আমাদের সচেতন হওয়াটাই জরুরি বলে মনে করছি।
৭.স্বাস্থ্য সেবার পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীও বিশ্ববিদ্যালয় এবং তার আশে পাশে নিরাপত্তায় নিয়োজিত থাকবেন ইনশাআল্লাহ।
৮.রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন এর মাননীয় মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন মেস মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দের কাছে ইতিমধ্যে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের গেস্ট হিসেবে মেসে থাকার অনুমতি প্রদানে অনুরোধ জানিয়েছেন। নিশ্চয়ই কর্তৃপক্ষ পরীক্ষার্থীদের স্বার্থে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।

RELATED ARTICLES

সর্বাধিক পঠিত