বর্ষাকাল  - শনিবার | ৯ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৪ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি | ২৪শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বর্ষাকাল  - শনিবার | ৯ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৪ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

১১ বছরে ১০ দফায় ১১৮ শতাংশ বেড়েছে বিদ্যুতের দাম

জনপদ ডেস্কঃ বিগত ১১ বছরে ১০ দফায় বিদ্যুতের পাইকারি দাম ১১৮ শতাংশ ও খুচরা দাম ৮৯ দশমিক ৬৩ শতাংশ বেড়েছে। এছাড়া প্রতিবছর বিদ্যুতখাতে সাত থেকে আট হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দেওয়া হয়, যা দামের সঙ্গে যুক্ত হলে বিদ্যুতের প্রকৃত মূল্য আরও বেশি হয় বলে জানিয়েছেন বক্তারা।

লিখিত বক্তব্যে মনজুরুল আহসান বলেন, পিডিবি ভেঙ্গে দুটি কোম্পানি হওয়ায় জনবল বাবদ ব্যয় বেড়েছে। তারা যে তথ্য-উপাত্ত দেয় তাতে এই বিষয়গুলো দেখা। কিন্তু অনিয়মের অনেক খবর আড়ালে থেকে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন কোম্পানিগুলো শেয়ার বিক্রি করে বেসরকারি মালিকানায় দেওয়া হচ্ছে। এ কোম্পানিগুলোর অর্থ বিভিন্ন ব্যাংকে এফডিআর করে রাখা হচ্ছে। পরবর্তীতে কিন্তু এই শেয়ারের অর্থ কোথায়  যাচ্ছে সেটা কেউ জানে না। বিগত বছরগুলোতে ভোক্তা সংশ্লিষ্ট সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে দেখানো হয়েছে যে বিদ্যুতের মূল্য বাড়ানো প্রয়োজন নেই, বরং তা কমানো যেতে পারে। অথচ বিগত ১১ বছরে ১০ দফায় বিদ্যুতের দাম বেড়েছে।

ক্যাবের উপদেষ্টা অধ্যাপক এম শামসুল আলম বলেন, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সঠিক দাম ও মানে পাওয়া আমাদের অধিকার। একই সঙ্গে পরিবেশ রক্ষার বিষয়টি ও সংবিধান নিশ্চিত করেছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সভাপতি ও অধ্যাপক এম এম আকাশ বলেন, বিগত ১১ বছরে ১০ দফায় বিদ্যুতের পাইকারি দাম ১১৮ শতাংশ। এই পাইকারি দাম বাড়ার প্রভাব পড়েছে ভোক্তা পর্যায়ে।

সভাপতির বক্তব্যে গোলাম রহমান বলেন, আমাদের জ্বালানি খাতে সুশাসনের অভাব রয়েছে। যতক্ষণ না সুশাসন প্রতিষ্ঠিত হয় ততক্ষণ আমাদের সোচ্চার থাকতে হবে।

RELATED ARTICLES

সর্বাধিক পঠিত